ঘরের মাঠে শুধু জয়ের কথাই ভাবছেন সাকিব

প্রকাশিতঃ আগস্ট ২২, ২০১৭ আপডেটঃ ৩:৩৬ অপরাহ্ন

১৯৯৯ থেকে ২০০৪। ওই সময় ৭২টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে ৭১টিতেই হেরেছিলো বাংলাদেশ। কি ঘরের মাঠ কি পরের মাঠ, তখন বাংলাদেশের হারই যেন ছিল অবধারিত। দিন পাল্টেছে, সেই অন্ধকার সময় আর নেই। পরের মাঠে গিয়েও এখন বুক চিতিয়ে লড়াই করে বাংলাদেশ। জেতেও। আর নিজেদের মাঠে?

সাকিব আল হাসান বলছেন, ঘরের মাঠে বাংলাদেশ এখন অপরাজেয়। ব্রিটিশ অভিজাত দৈনিক দ্য গার্ডিয়ানকে বিশের এক নম্বর অলরাউন্ডার শুনিয়েছেন বাংলাদেশের উত্তরণের গল্প। কিছুদিন আগেই ইংল্যান্ডে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সেমি ফাইনাল খেলে এসেছে বাংলাদেশ। গেল ওয়ানডে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালেও উঠেছিল মাশরাফি বিন মুর্তজার দল।

আর টেস্টে? গত অক্টোবরে হারিয়েছে শক্তিশালী ইংল্যান্ডকে। শ্রীলঙ্কায় গিয়েও জিতে এসেছে টেস্ট এরপরই। তার আগে লড়েছে ভারতেও। কি করে এতোটা এগিয়ে যাওয়া? সাকিব বলছেন, ‘এটা লম্বা গল্প। অনেকটা অবিশ্বাস্য। আমার মনে হয় বাংলাদেশের অনেকেও আমাদের এত উন্নতি আশা করেননি।’ তিনি মনে করেন এই উন্নতিতে ভূমিকা আছে বিদেশি কোচদের।

যারা ফিটনেস লেভেল বাড়িয়ে দিয়েছেন, শিখিয়েছেন পেশাদারিত্ব। এই সময়ে দেশের ক্রিকেটে বিনিয়োগ বেড়েছে, উন্নত হয়েছে অবকাঠামো। তবে সবচেয়ে যা বেড়েছে তার নাম আত্মবিশ্বাস। পরিষ্কার করলেন সাকিব, ‘আমরা জানি আমাদের সক্ষমতা আছে। আসলে বিশ্বাসটাই দরকার, কেবল জিততে জিততেই এই বিশ্বাস ভেতরে আসে।

এখন আত্মবিশ্বাসের কোনো কমতি নেই, দলের সবাই অনুধাবন করি দেশের মাটিতে আমরা অপরাজেয়, প্রতিপক্ষ কে এটা কোন বিষয় না। এই বিশ্বাসটাই আমাদের ভালো দলে পরিণত করেছে।’ ওয়ানডেতে কয়েকবছর থেকেই শক্তি দেখিয়ে আসছে বাংলাদেশ। পিছিয়ে ছিলো টেস্টে। এবার টেস্টেও শুরু হয়েছে বদলে যাওয়ার গল্প।

সাকিব মনে করেন টেস্টের উন্নতির পেছনেও কাজ করেছে সেই মানসিকতারই বদল, ‘আগে বড় দলের সঙ্গে আমাদের মাইন্ডসেট থাকত ড্র করব কিংবা পাঁচদিনে খেলা নিয়ে যাব, কিন্তু জিতব এমনটা ভেতর থেকে আসত না। তারপরই আমরা চিন্তা করলাম জিততে চেষ্টা করি, জেতার জন্যই খেলে দেখি। একটা সময় মাইন্ডসেট বদলালো, এখন আমরা বিশ্বাস করি যে আমরা জিততে পারি।’

গত মার্চে শ্রীলঙ্কার মাঠে সর্বশেষ খেলা টেস্টে ৪ উইকেটে জিতেছিলো বাংলাদেশ। দেশের ইতিহাসের শততম টেস্ট ম্যাচটিতে সেঞ্চুরি করে আর ৬ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। অক্টোবরে ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলা সর্বশেষ টেস্টেও জয়ী দলের নাম বাংলাদেশ। সে ম্যাচেও ব্যাটে বলেও দারুণ অবদান ছিলো সাকিবের।

আরও খবর: বিশ্ব একাদশের হয়ে পাকিস্তানে যাচ্ছেন তামিম

সব ফরম্যাটে বিশ্বের এক নম্বর অলরাউন্ডার সাকিব অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলার আগে দাঁড়িয়ে আছেন অনন্য রেকর্ডের সামনে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ উইকেট পেলে সব টেস্ট খেলা দেশের বিপক্ষে পাঁচ উইকেট নেওয়ার তালিকায় ইতিহাসের মাত্র চতুর্থ বোলার হিসেবে নাম উঠবে তার।

মুত্তিয়া মুরালিধরন, ডেল স্টেইন ও রঙ্গনা হেরাথ আছেন সে তালিকায়। সাকিব অবশ্যই এবারই প্রথম অসিদের বিপক্ষে টেস্ট খেলতে মাঠে নামবেন। ৪৯ টেস্ট খেলা সাকিব বন্ধু তামিম ইকবালের সঙ্গে ক্যারিয়ারের ৫০ নম্বর টেস্টও খেলবেন এই সিরিজে।

জেজে-০২/২২/০৮ (স্পোর্টস ডেস্ক)