বাংলাদেশ ইজ দ্য বেস্ট

প্রকাশিতঃ জুলাই ২২, ২০১৮ আপডেটঃ ৭:৪০ অপরাহ্ন

‘বাংলাদেশের মানুষ পৃথিবীর সেরা। পর্তুগাল ও বাংলাদেশের সম্পর্ক বহু পুরনো। পর্তুগিজরা বাংলাদেশে সর্বপ্রথম এসেছিলেন ষোড়শ শতকে। ব্যবসায়ের উদ্দেশ্যে পর্তুগিজ নাবিকরা চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করতেন।’ গত ১৮ জুলাই পর্তুগালের সংসদে পর্তুগাল-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক, পর্তুগালে বসবাসরত বাংলাদেশি কমিউনিটি এবং অভিবাসন বিষয়ে এসব কথা বলেন পর্তুগালের পোর্তো শহরের এমপি থিয়াগো বারবোজা রিবেইরো।

তিনি বলেন, ‘পর্তুগালের বর্তমান সরকার অভিবাসীবান্ধব। এছাড়া অভিবাসীদের ব্যাপারে পর্তুগাল সব সময়ই নমনীয়। মানবিক দিক বিবেচনায় সোশ্যালিস্ট পার্টিও সবসময় অভিবাসীদের সমর্থন করে আসছে। দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক সব জরিপ বলছে, ইউরোপের অন্য দেশগুলোর তুলনায় অভিবাসীদের সবচেয়ে আন্তরিকভাবে গ্রহণ করছে পর্তুগাল।’

রিবেইরো বলেন, ‘গত কিছুদিন আগে ইতালি ও স্পেন নৌকাভর্তি অভিবাসীদের ফিরিয়ে দিলেও পর্তুগাল তাঁদের নিরাপদ আশ্রয়ের ব্যবস্থা করার পক্ষে। তবে পর্তুগালে যেসব অনিয়মিত অভিবাসীর রেসিডেন্স পারমিট নেই কিন্তু সোস্যাল সিকিউরিটিতে ট্যাক্স-পে করছেন তাঁদের ব্যাপারে সরকার বেশ সচেতন।’ তিনি জানান, ‘বর্তমান সরকার অভিবাসীদের একটি পূর্ণাংগ তালিকা তৈরি করছে।

সংসদে এটা নিয়ে আলোচনাও হয়েছে। যারা পর্তুগালে বসবাস করছেন এবং সামাজিক নিরাপত্তায় অবদান রাখছেন, তাঁদের জন্য অভিবাসন সংক্রান্ত বিষয়গুলো আগের তুলনায় আরো সহজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এই বিষয়ে কয়েকটি আইনও পাস করা হয়েছে।’

বাংলাদেশি অভিবাসীদের ব্যাপারে রিবেইরো বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষা সেরা এবং বাংলাদেশি কমিউনিটি পর্তুগালের অভিবাসী কমিউনিটিগুলোর মধ্যে শ্রেষ্ঠ।’ তিনি বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে বহু বাংলাদেশির সংগে আমার পরিচয় হয়েছে, একসংগে কাজ করেছি। বাংলাদেশের মানুষেরা সৎ, পরিশ্রমী ও অন্যদের ব্যাপারে যত্নবান। নিজেদের কমিউনিটির উন্নয়নেও বাংলাদেশিরা বেশ আন্তরিক। এক কথায় বলতে গেলে ‘বাংলাদেশ ইজ দ্য বেস্ট’। ভবিষ্যতেও বাংলাদেশিরা পর্তুগালে আসবেন এবং পর্তুগাল হবে তাঁদের সেকেন্ড হোম।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে পর্তুগাল দূতাবাস না থাকায় বাংলাদেশিরা অনেক সমস্যায় পড়ছেন। তাই বাংলাদেশে পর্তুগালের স্থায়ী দূতাবাস করার বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আলোচনা করা হয়েছে। আশা করছি, বাংলাদেশে দূতাবাস করার ব্যাপারে আমাদের আলোচনা ফলপ্রসূ হবে।’

এসএইচ-২৪/২২/০৭ (প্রবাস ডেস্ক, তথ্যসূত্র : ভয়েস বাংলা)