কানাডায় ক্যারিয়ার করাটা কিছুটা চ্যালেঞ্জিং, তবে…

প্রকাশিতঃ ফেব্রুয়ারী ৯, ২০১৯ আপডেটঃ ৩:১৫ অপরাহ্ন

কানাডায় ভালো চাকরি পাওয়া নিয়ে অনেকেই চিন্তিত থাকেন। যারা ব্যাংকিং সেক্টরে ক্যারিয়ার করতে চাচ্ছেন, তাদের জন্যে এখানে ক্যারিয়ার করাটা কিছুটা চ্যালেঞ্জিং হলেও অসম্ভব নয়।

কানাডায় ইমিগ্রেশন প্রত্যাশী কিংবা কানাডাতে ইতিমধ্যে মাইগ্রেট করেছেন এমন স্কিলড ব্যাংকারদের জন্যে গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য দিয়ে আজকের লেখাটি সাজানো হয়েছে।

২০১৭ সালে কানাডার সাসকাচুয়ান প্রভিন্সের রেজাইনা শহরে এসেছিলাম। বাংলাদেশে থাকতেও নামকরা একটি ব্যাংকে কাজ করতাম। এরপর রেজাইনা এসে মাসখানেকের মধ্যে ‘ব্যাংক অব মন্ট্রিওলে’ (বিএমও) জয়েন করেছিলাম ‘কাস্টোমার সার্ভিস রিপ্রেজেন্টেটিভ’ হিসেবে।

১০ মাসের মধ্যেই পার্সোনাল ব্যাংকিং এসোসিয়েট হিসেবে প্রোমোটেড। বিএমও-তে বর্তমানে আমার মূল কাজ হচ্ছে কাস্টোমারদের কাছে ডিজিটাল ব্যাংকিং ফিচারসমূহ প্রমোট করা। মাস দুই কাজ করার পরে ভাবলাম এখন সময় এসেছে লাইসেন্সিং সার্টিফিকেট নেয়ার।

কানাডাতে মরর্টগেজ, মিচুয়াল ফান্ড ইত্যাদি নিয়ে কাজ করতে হলে অবশ্যই ‘কানাডা ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড’ কোর্স করে পরীক্ষা দিয়ে পাশ করে, প্রভিন্সিয়ালি রেজিস্টার্ড হতে হবে। এই কোর্সের জন্য এন্টাইটেল্ড বডি হিসেবে দুটি অপশন থেকে আপনি যেকোন একটি বেছে নিতে পারেন: IFSE এবং CSI

আমি প্রথম অপশন থেকে অনলাইন কোর্স কিনে নিয়ে মাসখানেক পড়াশোনা করে পরীক্ষা দিয়ে দিলাম। ডিসকাউন্টসহ ২৬০ কানাডিয়ান ডলারের মতন লেগেছে।

১০০টি মাল্টিপল চয়েজ প্রশ্ন থেকে ৬০টি সঠিক উত্তর দিতে পারলে একজন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ বিবেচিত হয়ে থাকে। কানাডিয়ান ইনভেস্টমেন্টের ধরন, তাদের রেগুলেশন, তাদের উপরে ট্যাক্সের নির্ধারন এবং সেগুলোর ক্যালকুলেশন নিয়েই সাজানো এই কোর্সটি।

এই পরীক্ষাটি পাশ করার পর আপনার মিচুয়াল ফান্ড ডিলার (ব্যাংক বা অন্যান্য ফাইন্যান্সিয়াল ইন্সটিটিউট) আপনার জন্য রেজিস্ট্রেশনের আবেদন করবেন এবং কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই ফাইনাল কনফার্মেশন পেয়ে যাবেন। এর পরে আপনি ফাইন্যান্সিয়াল এডভাইজর কিংবা ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ম্যানেজর (গ্রেড ৪/৫) লেভেলের জবের জন্য এপ্লাই করতে পারবেন।

যারা ফাইনান্সিয়াল প্ল্যানিং-এ ক্যারিয়ার গুছাতে চান তারা এই সার্টিফিকেটের পরে অবশ্যই FP1, FP2 পরীক্ষার প্রস্তুতি শুরু করে দিতে পারেন। আর বাংলাদেশে ব্যাংকিং সেক্টরে কাজের অভিজ্ঞতা থাকলে কানাডায় আসার পর অবশ্যই ব্যাংকগুলোতে ‘টেলার’ পজিশনে অ্যাপ্লাই করতে পারেন। কানাডার ব্যাংকে কাজের অভিজ্ঞতার সঙ্গে সঙ্গে পরীক্ষাগুলোতে উত্তীর্ণ হতে পারলে সুন্দর একটি ক্যারিয়ার করা কঠিন কোন বিষয় নয়।

কানাডায় ইমিগ্রেশন এবং ক্যারিয়ার বিষয়ে বিস্তারিত তথ্যের জন্যে ‘ইমিগ্রেশন এ্যাণ্ড সেটেলমেন্ট’ ওয়েবসাইট এবং ফেসবুক গ্রুপটি দেখতে পারেন।

এসএইচ-০৬/০৯/১৯ (প্রবাস ডেস্ক)