উড়োজাহাজ টিকিট যেন সোনার হরিণ

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৮, ২০১৯ আপডেটঃ ৩:৩২ অপরাহ্ন

‘ব্যাক ফর গুড’ কর্মসূচির আওতায় মালয়েশিয়া অবস্থানরত সকল বিদেশীদের স্বদেশে ফেরত যাওয়ার জন্য সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেছে দেশটির সরকার। এ কর্মসূচির মেয়াদ শেষ হবে আগামী ৩১ ডিসেম্বর।

আর এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে কুয়ালালামপুর-ঢাকা রুটে উড়োজাহাজের টিকিটের দাম চার থেকে পাঁচগুণ বাড়িয়ে দিয়েছে এয়ারলাইনসগুলো। ফলে কুয়ালালামপুর-ঢাকা রুটে যেখানে ৪০০ রিংগিতে মিলত উড়োজাহাজ টিকেট, এ কর্মসূচীর শেষ সময়ে এসে তা হয়েছে ১৭০০ থেকে ১৯০০ পর্যন্ত। তবুও মিলছেনা বিমান টিকেট। মালয়েশিয়ায় উড়োজাহাজ টিকেট যেন এখন সোনার হরিণ।

চলতি বছরের ১ আগস্ট থেকে শুরু হওয়া এ কর্মসূচির মেয়াদ শেষ হবে আগামী ৩১ ডিসেম্বর। তবে কর্মসূচি প্রক্রিয়াধীন থাকলেও প্রতিদিনই ইমিগ্রেশন পুলিশের ধরপাকড় অভিযান অব্যাহত রয়েছে। সাধারণ ক্ষমার সুযোগটি কাজে লাগিয়ে প্রবাসীরা ফিরতে চাইলেও কয়েকগুন বাড়তি টাকা দিয়ে টিকিট কেনার সামর্থ্য নেই এ প্রক্রিয়ায় সুযোগ গ্রহণ করা অনেকেরই।

কুয়ালালামপুর- ঢাকা রুটে ফ্লাইট পরিচালনাকারী এয়ারলাইন্সগুলো অসহায় ঘরমুখো যাত্রীদের কাছ থেকে চার থেকে পাঁচগুণ বাড়তি অর্থ আদায় করছে বলে জানা গেছে। উড়োজাহাজ টিকিটের দাম বৃদ্ধি কেন তা জানতে চাইলে কিছুদিনের মধ্যেই এ সঙ্কট নিরসন হয়ে যাবে বলে আশ্বাস দেন সংশ্লিষ্ট এয়ারলাইন্সগুলোর কর্মকর্তারা।

দেশে ফেরার অপেক্ষায় এ প্রবাসীদের উড়োজাহাজ ভাড়া কমানোসহ আসন সঙ্কট নিরসন করে সব এয়ারলাইন্সগুলোতে অতিরিক্ত ফ্লাইট দিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সদয় দৃষ্টি এবং দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান প্রবাসীরা।

এসএইচ-০৫/২৮/১৯ (প্রবাস ডেস্ক)