ছেলের হাতে বাবা খুন

প্রকাশিতঃ ফেব্রুয়ারী ৯, ২০১৯ আপডেটঃ ৭:৩৪ অপরাহ্ন

বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় পুকুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে ছেলে ও ছেলের বউয়ের লাঠির আঘাতে বাবা আব্দুস সাত্তার মোল্লা (৬৫) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় শনিবার দুপুরে গাবতলী থানায় ছেলেসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার গাবতলী উপজেলার ধোড়াপূর্বপাড়া গ্রামে আব্দুস সাত্তার মোল্লার নিজস্ব পুকুরে তার ছোট ছেলে জহুরুল ইসলাম মাছ ধরেন। এ সময় তার বড় ছেলে জয়নাল খবর পেয়ে সেখানে যান। সেখানে গিয়ে জহুরুলের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। জয়নাল ও তার স্ত্রী লাঠিসোটা নিয়ে ছোট ভাই জহুরুলের ওপর চড়াও হন।

এ ঘটনা চলতে থাকে রাত পর্যন্ত। রাতে তাদের বাবা বাগবিতণ্ডা থামাতে যান। এ সময় বড় ভাই জয়নাল ছোট ভাই জহুরুলকে এলোপাতাড়িভাবে মারপিট করছিলেন। তাদের থামাতে গেলে ক্ষিপ্ত হয়ে তারা বাবা আব্দুস সাত্তার ও মা জমেলা বেগমকে লাঠি দিয়ে আঘাত করলে ছাত্তার ঘটনাস্থলেই মারা যান।

গাবতলী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সেলিম হোসেন জানান, শনিবার সকালে ছাত্তারের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় আব্দুস সাত্তার মোল্লার স্ত্রী জমেলা বেগম বাদী হয়ে তার ছেলে জয়নাল ও ছেলের স্ত্রী আঙ্গুরা বেগম ও নাতিকে আসামি করে গাবতলী থানায় মামলা করেছেন। আসামিরা ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে।

এসএইচ-২৮/০৯/১৯ (উত্তরাঞ্চল ডেস্ক)