করতোয়া নদীতে ডুবে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিতঃ জুলাই ৩১, ২০১৯ আপডেটঃ ৯:০৭ অপরাহ্ন

বগুড়ায় করতোয়া নদীতে পৃথক স্থানে গোসল এবং মাছ ধরতে নেমে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার দুপুর ১টা থেকে ২টার মধ্যে তাদের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন- আবু সুফিয়ান সাদ (২০) ও সোহেল রানা (১৮)।

আবু সুফিয়ান সাদ বগুড়া সদরের ফুলবাড়ি জয়পুরপাড়ার ইমতিয়াজ হোসেনের ছেলে। তিনি সিলেট পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের ছাত্র ছিলেন। আর সোহেল রানা বগুড়া সদরের শাখারিয়া ইউনিয়নের জঙ্গলপাড়া এলাকার কুদ্দুস প্রামাণিকের ছেলে। তিনি বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজ থেকে এবারই এইচএসসি উত্তীর্ণ হয়েছেন।

বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) রেজাউল করিম রেজা জানান, আবু সুফিয়ান সাদ দুপুর ১টার দিকে তার বাড়ি শাখারিয়া ইউনিয়নের জঙ্গলপাড়া এলাকায় করতোয়া নদীতে গোসল করতে নামেন। এ সময় তুষার ও সজীব নামে দুই বন্ধুও তার সঙ্গে ছিল।

তারা একটি টিউব (বাসের চাকার টায়ারের ভেতরের অংশ) ধরে সাঁতার কাটার সময় আবু সুফিয়ান সাদের হাত ফসকে যায়। এতে তীব্র স্রোতে তিনি পানির নিচে তলিয়ে যান। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তার লাশ উদ্ধার করে।

অপরদিকে দুপুর ২টার দিকে শহরের ফুলবাড়ি এলাকায় বাড়ির সামনে বাবার সঙ্গে জাল নিয়ে মাছ ধরতে নামেন সোহেল রানা। এক পর্যায়ে তার হাতের মুঠো থেকে জাল ফসকে গেলে তিনি সেটি উদ্ধারের জন্য নদীর গভীর পানিতে লাফ দেন। কিন্তু স্রোতের টানে তিনিও তলিয়ে যান। পরে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) রেজাউল করিম রেজা জানান, পৃথক দুটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা হয়েছে।

বিএ-১৯/৩১-০৭ (উত্তরাঞ্চল ডেস্ক)