অস্ত্রধারী সেই যুবক গ্রেফতার

প্রকাশিতঃ জুলাই ৫, ২০১৯ আপডেটঃ ৯:০৫ অপরাহ্ন

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে আজরুল খান নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে ১টি রামদা ও ২টি হাসুয়া উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে এই ঘটনা ঘটে।

গ্রেফতার আজরুল শিবগঞ্জ পৌর এলাকার সেলিমাবাদ খানপাড়ার ফাইজুদ্দিন খানের ছেলে।

জানা গেছে, ১ জুলাই শিবগঞ্জ পৌর এলাকার পাইলিং মোড়ে শাহজাহান আলী সাজা নামে এক ব্যক্তিকে হাসুয়া নিয়ে ধাওয়া করেন আজরুল। পরে বৃহস্পতিবার রাতে রাতে ফেসবুকে সেই ছবি প্রকাশের পর শুক্রবার দুপুরে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ভুক্তভোগী শাহজাহান আলী সাজা জানান, জমির সীমানা নিয়ে বিরোধের জেরে তার বাবা হেদায়েত আলী শেখের সঙ্গে একই এলাকার আজরুল খানের বিরোধ চলে আসছিল। এর জেরে শাহজাহান আলী সাজা শিবগঞ্জ পৌরসভায় একটি অভিযোগ দিলে পৌর সালিশ বোর্ড গত ১ জুলাই উভয় পক্ষকে লিখিতভাবে সালিশে হাজির হবার নিদের্শ দেয়। আদেশটি পাবার পর আজরুল উত্তেজিত হয়ে হাসুয়া নিয়ে তিনি ও তার পরিবারের সদস্যদের ধাওয়া করেন। পরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তিনি জানান, পরে এ ঘটনায় তিনি শিবগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ এবং ৩ জুলাই জিডি করেন। এরপরও শিবগঞ্জ থানা কোন ব্যবস্থা নেয়নি। অবস্থা বেগতিক দেখে তিনি ৪ জুলাই রাতে সেদিনের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ সুপারকে ট্যাগ করে ফেসবুকে আপলোড করেন। ফুটেজ আপলোডের পরদিন শুক্রবার দুপুরে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ অভিযুক্ত আজরুলকে গ্রেফতার করে।

শিবগঞ্জ থানার এসআই সিরাজ জানান, শাহজাহান আলী সাজার লিখিত কোন অভিযোগ তিনি পাননি এবং ঘটনার দিন ঘটনাস্থলে কাউকে না পাওয়ায় গ্রেফতার করতে পারেননি তিনি।

তার দাবি, থানায় জিডি দায়েরের পর পুলিশ দেশিয় অস্ত্র বহনের দায়ে আজরুলকে শুক্রবার দুপুরে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে এবং ওই ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করে।

অন্যদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ সুপার টিএম মোজাহিদুল ইসলাম জানান, তিনি প্রকাশ্যে সন্ত্রাসী কার্যক্রমের একটি ছবি ফেসবুকে দেখে স্বপ্রণোদীত হয়ে অস্ত্রধারীকে দ্রুত গ্রেফতারের নির্দেশ দেন। থানায় অভিযোগ দেওয়ার বিষয়টি তার জানা নেই।

বিএ-১৬/০৫-০৭ (উত্তরাঞ্চল ডেস্ক)