বাস থেকে খালেদা জিয়ার নাম মুছে দিল ছাত্রলীগ, ছাত্রদলের প্রতিবাদ

প্রকাশিতঃ ফেব্রুয়ারী ১২, ২০১৮ আপডেটঃ ১০:০৩ অপরাহ্ন

রাজশাহী কলেজে শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য উপহার দেওয়া বাস থেকে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নাম মুছে দিয়েছে ছাত্রলীগ। এর আগে ১৯৯৩ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া রাজশাহী কলেজের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য বাস উপহার দেন। সেই থেকে এ পর্যন্ত বাসটি প্রতিনিয়ত রাজশাহী কলেজের শিক্ষার্থীদের বিরতিহীন পরিবহন করে আসছে। এদিকে এর  নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে রাজশাহী মহানগর ছাত্রদল।

রাজশাহী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাইমুল হাসান নাঈম উদ্যোগটি নিয়েছিলেন। এই ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেন তারই অনুসারীরা। এরপর পরই সমালোচনার ঝড় উঠে ফেসবুকে। এরপর পরই ফেসবুকে নানা ভাবে শেয়ার হতে থাকে ছবিটি।

বিষয়টি নিয়ে কলেজের শিক্ষক এবং সাধারণ শিক্ষার্থীদের মনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তাদের মতে, উপহার দেয়ার কারণে নামটি মুছে ফেলার কোন প্রসঙ্গ আসে না। কোন নেতা ব্যাক্তিগত স্বার্থে যাই করুক না কেন শিক্ষার্থীদের ব্যবহারের জন্য পাঠানো জিনিসের নাম মুছে ফেলা উচিত হয়নি।

আরও খবর: পরীক্ষা কেন্দ্রের ২০০ মিটারের মধ্যে মোবাইল ফোন পেলে গ্রেফতার

রাজশাহী কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাইমুল হাসান নাইম বলেন, আমরা রাজশাহী কলেজ ছাত্রলীগ উপর থেকে নির্দেশ না আসলে কাজ করি না। মহানগর ছাত্রলীগের নির্দেশে বাস থেকে খালেদা জিয়ার নামটি মুছে ফেলা হয়েছে। খালেদা জিয়া বা জিয়া পরিবার এতিমদের টাকা আত্মসাৎ করে নানা জায়গায় ভিত্তি স্থাপন করেছে। বিভিন্ন স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে বাস উপহার দিয়েছে। এর আগেও জিয়া আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের নাম পরিবর্তন করা হয়েছে। জিয়া পরিবারের নাম যে সকল স্থানে আছে সেগুলো পরিবর্তন করার ধারাবাহিকতায় কাজটি করা হয়েছে বলে আমি মনে করি।

রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসের মহা. হবিবুর রহমান জানান, আগে তিনি বিষয়টি জানতেন না। রোববার তিনি বিষয়টি জানতে পেরেছেন। তিনি নাইম হাসানের কাছে জানতে চেয়েছিলেন। তিনি খালেদা জিয়ার নাম মুছে দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন।

এদিকে এর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে রাজশাহী মহানগর ছাত্রদল। এক বার্তায় রাজশাহী মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি আসাদুজ্জামান জনি, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবি, সিনিয়ার সহ-সভাপতি মুর্ত্তজা ফামিন, সহ-সভাপতি মাহমুদ হাসান শিশিল, সারওয়ার জাহান শিবলী, গোলাম রাব্বানী, যুগ্ম সম্পাদক নাহিন আহম্মেদসহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে থানা ও ওয়ার্ডের সকল নেতাকর্মী এ প্রতিবাদ জানায়। তারা দ্রুত এই অপকর্মের সাথে জড়িত শিক্ষার্থীদের শাস্তি প্রদানের জন্য অত্র কলেজের অধ্যক্ষ এর নিকট দাবী জানান।

এমও-১৮/১২-০২ (শিক্ষা ডেস্ক)