চবিতে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, আহত ৭

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২, ২০১৮ আপডেটঃ ৭:২২ অপরাহ্ন

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে সাতজন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার গভীর রাত থেকে শুরু হওয়া এ সংঘর্ষের জেরে শুক্রবার দিনভর ক্যাম্পাস জুড়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে ছিল।

বিবদমান দুই পক্ষ হলো ছাত্রলীগ সমর্থিত বগিভিত্তিক সংগঠন ‘সিক্সটি নাইন’ এবং ‘চুজ ফ্রেন্ড উইথ কেয়ার’ (সিএফসি)। এদের মধ্যে ‘সিক্সটি নাইন’ সিটি মেয়র আ জ ম নাসির উদ্দীনের অনুসারী এবং ‘সিএফসি’ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মহীবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে পরিচিত।

আহতদের মধ্যে আল-আমিন এবং আরিফ নামের দুই ছাত্রলীগ কর্মীর আঘাত গুরুতর হওয়ায় তাদেরকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। বাকি পাঁচজনকে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার রাতে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে সিএক্সটি নাইনের আবু হেনা রনি নামের এক কর্মীকে মারধর করেন সিএফসির কয়েকজন নেতাকর্মী। এ খবর ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়লে গভীর রাতে উভয় পক্ষের নেতাকর্মীরা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে এবং একপক্ষ অপর পক্ষকে ধাওয়া দেয়। রাতভর থেমে থেমে এ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও ইট পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। পরবর্তীতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে উভয় পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ ঘটনার রেশ ধরে শুক্রবারও ক্যাম্পাসে উত্তেজনা বিরাজ করে।

হাটহাজারি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর সমকালকে বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। ক্যাম্পাসে শিক্ষার পরিবেশ বজায় রাখতে পুলিশ কঠোর হতে বাধ্য হবে।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সিক্সটি নাইন গ্রুপের নেতা মনছুর আলম বলেন, ‘জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে শিবিরের অনুপ্রবেশকারীরা ক্যাম্পাসকে অস্থিতিশীল করতে উঠে পড়ে লেগেছে। তারা আমাদের এক কর্মীকে বিনা উস্কানিতে মারধর করে। আমরা এই সব কুচক্রি মহলকে প্রতিহত করবো।’

অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ- সভাপতি ও সিএফসি গ্রুপের নেতা জামান নুর বলেন, ‘এ অভিযোগ মিথ্যা। তারাই প্রথম সোহরাওয়ার্দী হলে আমাদের কয়েক নেতাকে মারধর করে। প্রশাসন এর বিচার না করলে আমরা আন্দোলনে যাব।’

বিএ-১১/০২-১১ (শিক্ষা ডেস্ক, তথ্যসূত্র: সমকাল)