ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে রাবি স্কুলশিক্ষক বরখাস্ত

প্রকাশিতঃ মার্চ ৫, ২০২০ আপডেটঃ ১০:১৪ অপরাহ্ন

স্কুল ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল শিক্ষক দুরুল হুদাকে বরখাস্ত করেছে স্কুল পরিচালনা পরিষদ। ফৌজদারী অভিযোগে গ্রেফতার হওয়ায় চাকরি থেকে তাঁকে গতবছরের ২০ অক্টোবর থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

বুধবার শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউটের পরিচালক ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল পরিচালনা পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক মো. আবুল হাসান চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এর আগে, জামিনে থাকা অবস্থায় তিনি স্কুলের ক্লাস-পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন বলে জানা গেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলের প্রাণিবিদ্যা বিষয়ের প্রভাষক মো. দুরুল হুদা ফৌজদারী অভিযোগে গ্রেফতার হওয়ায় তাঁকে ২০.১০.২০১৯ তারিখ থেকে চাকুরি থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো। তিনি সাময়িক বরখাস্তকালীন সময়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি মোতাবেক জীবিকা নির্বাহ ভাতা পাবেন।

এরআগে, গতবছরের ২০ অক্টোবর মেয়েকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে শিক্ষক দুরুল হুদার বিরুদ্ধে রাজশাহীর মতিহার থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করে ভুক্তভোগীর মা। মামলায় পুলিশ ওই শিক্ষককে গ্রেফতার করে। প্রায় দুই মাস কারাগারে থাকার পর গতবছর ১২ ডিসেম্বর জামিনে বেরিয়ে আসেন তিনি।

এর পরিপ্রেক্ষিতে এবছর ২০ ফেব্রুয়ারি জামিনে থাকা সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে অভিযোগটির নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত হাইকোর্ট তাকে সাময়িক বরখাস্ত রাখার নির্দেশ দেন।

বিএ-১১/০৫-০৩ (শিক্ষা ডেস্ক)