জাহ্নবী কেনো কেঁদে ফেললেন (ভিডিও)

প্রকাশিতঃ জুলাই ১৯, ২০১৮ আপডেটঃ ৯:০৫ অপরাহ্ন

প্রথম ছবি। পেটের মধ্যে প্রজাপতি ওড়া তো স্বাভাবিক। আবেগের বন্যায় ভেসে যাওয়াও স্বাভাবিক। তবে ধড়ক যেন গোটা একটা জীবন জাহ্নবী কাপুরের কাছে। ছবির কাজ যখন শুরু করেছিলেন, তখন জীবন ছিল একরকম। বাঁচার অর্থ আলাদা ছিল তাঁর কাছে। কাছে ছিল জীবনের সবচেয়ে প্রিয় মানুষটা। প্রতিটা পদক্ষেপে যে এগিয়ে যাওয়ার পথ দেখাত। আজ মুক্তি আসন্ন।

অথচ প্রিয় সেই মানুষটাই আর নেই এই জগতে। হয়তো অন্য কোনও জগতে অবস্থান করছে। সেখান থেকেই দেখছে। এটুকু ভেবেই নিজের মনকে সান্ত্বনা দিচ্ছিলেন জাহ্নবী। কিন্তু মুক্তির আগেই ছবির স্পেশ্যাল স্ক্রিনিংয়ে এমন ঘটনা ঘটল, নিজের আবেগে নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারলেন না শ্রীদেবী-কন্যা। সকলের মাঝেই কেঁদে ফেললেন তিনি। খবর প্রকাশ্যে এসেছে সংবাদ সংস্থা স্পটবয়-এর সূত্রে।

আরও খবর : নওয়াজের সাথে কে এই সুন্দরী

মারঠি ব্লকবাস্টার ‘সাইরাত’কে হিন্দি ভাষায় তুলে ধরেছেন পরিচালক শশাঙ্ক খৈতান। শুক্রবারই মুক্তি পাবে ছবিটি। তার আগে যশরাজ স্টুডিওতে ছিল স্পেশ্যাল স্ক্রিনিং। ছবির নায়ক ভাই ইশান খাট্টার। তাই অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী মীরাকে নিয়েই হাজির হয়েছিলেন শাহিদ কাপুর। ছিলেন রেখা, মাধুরী দীক্ষিত, সোনাক্ষি সিনহারাও। আর হাজির ছিল জাহ্নবীর পরিবারের সদস্যরা।

যাঁদের মধ্যে এতদিন একটা অজানা দূরত্ব ছিল। কিন্তু শ্রীদেবীর মৃত্যুর পর সে দুরত্ব প্রায় নেই বললেই চলে। তবুও বনি কাপুর ও অর্জুন কাপুরের সম্পর্কে কোথাও একটা অস্বস্তি ছিল। তাও ‘ধড়ক’-এর প্রিমিয়ারে কর্পূরের মতো উবে গেল। কেঁদে ফেললেন জাহ্নবী। যখন বাবা বনি কাপুর ও ভাই অর্জুন একসঙ্গে আলিঙ্গন করলেন তাঁকে।

অর্জুনের মা মোনা কাপুরের সঙ্গে বিবাহিত হওয়া সত্ত্বেও শ্রীদেবীর সঙ্গে আলাদা সংসার পাতেন বনি। মেয়ে জাহ্নবী-খুশির সঙ্গেই বেশি সময় কাটাতে দেখা গিয়েছে বনিকে। শ্রীদেবীর সঙ্গে বাবার সম্পর্ক কোনওদিনই মেনে নিতে পারেননি অর্জুন কাপুর। প্রকাশ্যে বাবা-ছেলের দূরত্ব একাধিকবার স্পষ্ট হয়েছে।

কিন্তু শ্রীদেবীর আকস্মিক মৃত্যুর পর থেকে বাবার পাশে দাঁড়ান অর্জুন। শোনা গিয়েছে, ঘনিষ্ঠ মহলে অভিনেতা জানিয়েছেন, জীবনে প্রত্যেকের দ্বিতীয় সুযোগ পাওয়া উচিত। সেই সুযোগেই যেন বনির ভাঙা সম্পর্কগুলি জুড়ে গেল।

এসএইচ-১৩/১৯/০৭ (বিনোদন ডেস্ক, তথ্যসূত্র : সংবাদ প্রতিদিন)