ব্রোকোরের পাওনা টাকা না দেয়ায় বিপাকে কঙ্গনা

প্রকাশিতঃ আগস্ট ২০, ২০১৮ আপডেটঃ ৯:০৮ অপরাহ্ন

ভারতের মুম্বাইয়ের বান্দ্রা সংলগ্ন পালি হিল এলাকায় বাংলো কিনেছেন বলিউড কুইন কঙ্গনা রানাউত। অথচ বাড়ি কেনার জন্য মধ্যস্থতাকারী সংস্থার (ব্রোকোর) পাওনা মেটাননি এ অভিনেত্রী।

সূত্রের খবর, এ বিষয়ে মুম্বাইয়ের খার পুলিশ স্টেশনে কঙ্গনা ও তার বোন রঙ্গোলি ও কঙ্গনার ফাইন্যান্স টিমে কাজ করেন আরো এক কর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই মধ্যস্থতাকারী। এরপরই পুলিশের তরফে কঙ্গনার কাছে সমন পাঠানো হয়েছে।

বলিউড লাইফ সূত্রের খবর, গত বছরই মুম্বাইয়ের পালি হিল এলাকায় ২০.৭ কোটি টাকা দিয়ে এই বাংলো কেনেন বলিউডের ‘কুইন’ কঙ্গনা। যে বাড়িটা আগে একটি বাচ্চাদের প্লে স্কুল ছিল। বাংলোটি কেনার পাাশাপাশি ৫৬৫ স্কোয়ার ফিটের একটি গ্যারেজও কিনেছেন কঙ্গনা। জানা যাচ্ছে, এই বাংলোটি কেনার জন্য সরকারকে ১.০৩ কোটি টাকা কর দিয়েছেন কঙ্গনা।

তবে অভিনেত্রীর দাবি, ‘আমি বাংলো কেনার জন্য ওই মধ্যস্থতাকারী সংস্থা (ব্রোকার)কে চুক্তি অনুযায়ী বাংলোর দামের ১ শতাংশ অর্থা ২২ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে। আর সেটা বহুদিন আগেই দেওয়া হয়েছে। এই বাড়িটি কেনার জন্য যিনি মধ্যস্থতা করেছেন তার সঙ্গে এ বিষয়ে আমার সরাসরি কথা হয়েছে। অথচ এখন ওই মধ্যস্থতাকারী ব্যক্তি প্রকাশ জি রোহিরা অকারণে আমার ফাইন্যান্স টিমকে হেনস্থা করছে।

আমার কাছ থেকে হঠাৎ করে বাংলোর দামের ২ শতাংশ হিসাবে আরও ২২ লক্ষ টাকা চাওয়া হচ্ছে। অথচ এ ধরনের কোনো চুক্তিই ওই মধ্যস্থতাকারীর সঙ্গে আমার হয়নি। ইতিমধ্যেই চুক্তি অনুযায়ী আমি টাকা দিয়ে দিয়েছি, এবং তার সমস্ত কাগজপত্র আমার কাছে রয়েছে।

কঙ্গনার কাছে পাওনাগণ্ডা হিসাবে বচসার পরই, কর্মা রিয়েলটার্স নামে ওই মধ্যস্থতাকারী সংস্থার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তি প্রকাশ জি রোহিরা গত জুলাই মাসের শেষে কঙ্গনা ও তার বোন রঙ্গোলির বিরুদ্ধে গোপনে খার পুলিশ স্টেশনে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন বলে জানা যাচ্ছে।

এরপরই খার পুলিশ স্টেশনের তরফে কঙ্গনার কাছে সমন পাঠানো হয়। ইতিমধ্যেই এ বিষয়ে কঙ্গনার বোন রঙ্গোলি চান্দেল পুলিসের কাছে তার লিখিত বক্তব্য জানিয়েছেন। তবে কঙ্গনা রানাওয়াত এখনও পর্যন্ত তার বক্তব্য লিখিতভাবে জানাননি বলে জানিয়েছেন খার পুলিশ স্টেশনের এক পুলিশ কর্তা।

এসএইচ-১৩/২০/০৮ (বিনোদন ডেস্ক)