কুমার শানুর জন্য বলিউডকে বিদায় বলেছিলেন মীনাক্ষি

প্রকাশিতঃ ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯ আপডেটঃ ২:৫৪ অপরাহ্ন

একসময় মিস ইন্ডিয়া হয়েছিলেন এই সুন্দরী। দাবিয়ে রাজত্ব করেছিলেন বলিউডেও। কিন্তু হঠাৎ করেই যেন হারিয়ে গেলেন বিনোদনের দুনিয়া থেকে। তিনি মীনাক্ষি শেষাদ্রি। তার প্রথম সিনেমা ‘পেন্টার বাবু’। জ্যাকি শ্রফের বিপরীতে অভিনয় করেছেন হিরোতেও। এরপর আরও অনেক সিনেমা রয়েছে তার কেরিয়ারে।

আর পিছন ফিরেও তাকাতে হয়নি মীনাক্ষিকে। তবে বক্স অফিসে তিনি যত না সাফল্য পেয়েছেন তার চেয়েও বেশি শিরোনামে এসেছেন অনিল কাপুর, জ্যাকি শ্রফ, সুভাষ ঘাই, কুমার শানুর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোর পর।

কুমার শানুর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোর পরই বলিউডের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেন মীনাক্ষি।

শোনা যায়, কুমার শানুর সঙ্গে যখন তার প্রেম তুঙ্গে তখন গায়কের বিয়ে হয়ে গিয়েছে। কুমার শানু অবশ্য মীনাক্ষিকে কথা দিয়েছিলেন তার প্রথম স্ত্রীকে ডিভোর্স দিয়েই বিয়ে করবেন মীনাক্ষিকে। কিন্তু মীনাক্ষি তখন সম্পর্কের জন্য প্রস্তুত ছিলেন না।

বিয়ের কথা উঠতেই তিনি পিছিয়ে যান। এদিকে টালমাটাল হয়ে পড়ে শানুর বিবাহিত জীবন। তখন সব কিছুর জন্য শানু মীনাক্ষিকেই দোষারোপ শুরু করে। ১৯৯৫ সালে মীনাক্ষি ব্যাংক কর্মকর্তা হরিশ মাইসোরের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। এরপরই তিনি রুপালি দুনিয়া থেকে সরে আসেন। ২৩ বছর সিনেমার সঙ্গে আর তার কোনও যোগাযোগ নেই।

বিয়ের পর শানু ও তার সম্পর্ক নিয়ে বেশ জলঘোলা হয়। অভিনয় ছাড়ার পর মানাক্ষি স্বামীর সঙ্গে টেক্সাস চলে যান। সেখানেই ‘চেরিস’ নামে একটি নাচের স্কুল খোলেন। এখন তিনি পাকাপাকি টেক্সাসের বাসিন্দা। স্বামী আর দুই সন্তান নিয়েই তার ব্যস্ত সংসার।

আরএম-০৮/১৪/১২ (বিনোদন ডেস্ক)