করোনায় বিপদে পরা তারকাদের ফেসবুক স্ট্যাটাস, যা লিখলেন

প্রকাশিতঃ মার্চ ১৯, ২০২০ আপডেটঃ ৩:১৮ অপরাহ্ন

গত ১৬ মার্চ যুক্তরাষ্ট্র থেকে ঢাকায় ফিরে হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন অভিনেত্রী-নির্মাতা মেহের আফরোজ শাওন। এ বিষয়ে তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে লিখেছেন, ‘বেশ আগে প্রতিশ্রুতি দেওয়া একটি বইমেলায় অংশ নিতে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলাম। পরম করুণাময়ের অশেষ কৃপায় দেশে ফিরেছি। গতকাল (১৬ মার্চ) থেকে আমি ধানমন্ডির বাসায় সবার থেকে আলাদা আছি। মায়ের বাড়িতে থাকা পুত্রদের সঙ্গে ঘণ্টায় ঘণ্টায় ভিডিও কলে কথা হচ্ছে। দখিণ হাওয়ায় আমার বাসার দরজা প্রথমবারের জন্য তালাবন্ধ রাখা হয়েছে! আমি ভালো আছি। জ্বর, কাশি, গা ব্যথা কিছুই নেই।’

আইসোলেশনে দিলীপ কুমার

করোনা থেকে বাঁচতে আইসোলেশনে আছেন বলিউডের কিংবদন্তি অভিনেতা দিলীপ কুমার। দীর্ঘদিন ধরে তিনি অসুস্থতার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। শারীরিকভাবেও অত্যন্ত দুর্বল। আর এ ধরনের রোগীর সংক্রমণের সম্ভাবনা অনেক বেশি। তাই করোনার হাত থেকে রক্ষা করতে দিলীপ কুমারকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। এ কথা অভিনেতার টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে জানানো হয়েছে। টুইটে বলে হয়েছে, ‘করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে আমি পুরোপুরি আইসোলেশনে ও কোয়ারেন্টিনে আছি। সায়রা (স্ত্রী) এ ব্যাপারে পুরোপুরি খেয়াল রাখছে, যাতে আমি সংক্রমিত না হই।’

করমর্দন করছেন না তাহসান

আজ থেকে টানা চার দিন দুটি নাটকের শুটিংয়ে অংশ নেওয়ার কথা ছিল সংগীতশিল্পী-অভিনেতা তাহসানের। কিন্তু করোনা ভাইরাস নিয়ে সতর্কতার কারণে শুটিং বন্ধ করে দিয়েছেন তিনি। এমনকি কারও সঙ্গে করমর্দনও করছেন না। এ প্রসঙ্গে তাহসান বলেন, ‘সারা পৃথিবীতেই বুদ্ধিমান মানুষ বলছে, এ ভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে আইসোলেশন জরুরি। শুধু শিশুরা যদি স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দেয়, তা হলেই হবে না। সবাইকে যার যার জায়গা থেকে সতর্ক থাকতে হবে। প্রয়োজনে কিছু দিন ঘরে থাকতে হবে।

আপাতত আগামী ২-৩ সপ্তাহ কোনো কাজ করছি না। উন্নত দেশগুলো ভাইরাসটি নিয়ন্ত্রণ করতে হিমশিম খাচ্ছে। আমাদের ছোট দেশ, জনসংখ্যা ঘনত্ব খুবই বেশি। আমরা যদি সতর্ক না থাকি, তা হলে এই ভাইরাস ছড়াতে বেশি সময় লাগবে না। সামনে হয়তো কোনো দুর্যোগ আসতে পারে, সে জন্য আগে থেকে সতর্ক ভালো।

আরএম-০৩/১৯/০৩ (বিনোদন ডেস্ক)