অভিনয়ের চেয়ে শুভেচ্ছাদূতের কাজ নিয়েই ব্যস্ত নুসরাত ফারিয়া

ছিলেন উপস্থাপিকা। এরপর আসলেন অভিনয়ে। হলেন চিত্রনায়িকা। কাজ করছেন ঢাকা ও কলকাতা দুই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতেই। কিন্তু এ নায়িকা অভিনীত হিট সিনেমার নাম খুব একটা জোরে উচ্চারিত হবে না কারো গলায়।

তবু ফারিয়া ব্যস্ত। ঢাকার চেয়ে কলকাতার সিনেমা নিয়েই ব্যস্ত থাকতে দেখা গেছে তাকে। সিনেমার চেয়েও বেশি ব্যস্ততা বিভিন্ন কোম্পানির শুভেচ্ছাদূত হওয়া নিয়ে।

এ মুহূর্তে এই চিত্রনায়িকা দেশের একাধিক প্রতিষ্ঠানের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে কাজ করছেন। চুক্তি অনুযায়ী, তাদের বিজ্ঞাপনে মডেল হচ্ছেন। আগে থেকেই এসএমসির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ ছিলেন নুসরাত ফারিয়া।

সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে আবারো এক বছরের জন্য চুক্তি বাড়িয়েছেন তিনি। এ প্রতিষ্ঠানে সেনিটারি ন্যাপকিনের বিজ্ঞাপনে মডেল হয়ে কাজ করছেন গত কয়েক বছর ধরে।

এদিকে ‘প্রাণ ফ্রুটো’রও শুভেচ্ছাদূত হয়েছেন এই নায়িকা। চুক্তি বাড়িয়েছেন ক্লিয়ার শ্যাম্পুর প্রোডাকশন কোম্পানির সঙ্গে। বর্তমানে এসব কোম্পানির কাজ নিয়েই ব্যস্ত রয়েছেন ফারিয়া।

এ প্রসঙ্গে ফারিয়া বলেন, আমার জন্য এটা সত্যিই অনেক আনন্দের ও ভালো লাগার যে, আমি যেসব প্রতিষ্ঠানের হয়ে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর কিংবা মডেল হিসেবে কাজ করছি তারা আমার ওপর আস্থা রেখেছেন। আমার কাজ বিবেচনা করে নতুন করে চুক্তি করছেন। একজন শিল্পী হিসেবে আমি আমার অবস্থান থেকে কাজটা শতভাগ সততার সঙ্গে করার চেষ্টা করি এবং আজীবন তাই করব।

এদিকে গত বছরের শেষ দিকে কলকাতায় মুক্তি পেয়েছে তার অভিনীত ‘বিবাহ অভিযান’ নামে একটি সিনেমা। দেশেও ‘সে আসে ধীরে’ নামে একটি সিনেমা কাজ শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

এসএ-০৩/২৭/২৪(বিনোদন ডেস্ক)