স্কুলে লেখাপড়া করছেন দাদি

প্রকাশিতঃ মার্চ ২২, ২০১৮ আপডেটঃ ২:৫৬ অপরাহ্ন

প্রথা ভেঙে ৯২ বছর বয়সী এক তুর্কি নারী তার ছোট বেলার স্বপ্ন পূরণ করতে স্কুলে যাওয়া শুরু করেছেন। শৈশবে স্কুলে যাওয়ার সুযোগ না পাওয়ায় এখন লেখাপড়া শিখছেন গুল্লু সারাক।

একটি শিক্ষামূলক কার্যক্রমে গুল্লু সারাকসহ আটজন নারী অংশ নিচ্ছেন। তুরস্কের সিনপ শহরে তিনি ওই কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছেন বলে জানিয়েছে দেশটির সংবাদ সংস্থা আনাদোলু এজেন্সি।

সারাক তাদের সবচেয়ে বয়োজ্যেষ্ঠ ও দৃঢ়সংকল্প শিক্ষার্থী। তিনি বলেন, ‘আমার ছেলেমেয়েরা বহু বছর আমাকে শেখানোর চেষ্টা করেছিল, কিন্তু এর আগে আমি কখনো স্কুলে যাইনি।’

আরও খবর : শিশু সন্তান কোলে নিয়েই মায়ের পরীক্ষা!

তার বোনের উৎসাহে গাজি প্রাইমারি স্কুলে নিয়মিত যাওয়া শুরু করেন সারাক। ‘এই কার্যক্রম স্কুলে চলাতে ভালো হয়েছে, কারণ আমি সবসময় স্কুলের বেঞ্চে বসতে চেয়েছিলাম’ বলেন তিনি।

খুব অল্প সময়ের মধ্যেই সারাক পড়তে শিখে গেছেন। তিনি বলেন,
‘আমি এখন কিছু প্রবন্ধ পড়তে পারি। কিন্তু, আশা করছি শিক্ষকদের সহায়তায় শিগগিরই লিখতেও শিখে যাব।’

লিখতে শেখার পর নিজের ছেলেমেয়ে ও নাতি-পুতিদের নামের তালিকা তৈরি করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। সারাক বলেন,’আমি আমার ছেলেমেয়ে ও নাতি-পুতিদের নাম লিখতে চাই।’

এসএইচ-০২/২২/০৩ (অনলাইন ডেস্ক)