শিক্ষার্থীরা দু’হাতে লেখে (ভিডিও)

প্রকাশিতঃ এপ্রিল ২০, ২০১৮ আপডেটঃ ৩:৫৭ অপরাহ্ন

ভারতের মধ্যপ্রদেশের সিংরাউলি জেলার একটি স্কুলে অভিনব পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা দিয়ে থাকেন শিক্ষকেরা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এক প্রতিবেদনে জানায়, সেখানকার শিক্ষার্থীদের প্রত্যেকেই দু’হাত দিয়ে লিখতে পারে। এখানেই শেষ নয়, সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি তারা ৫টি ভাষাতে কথাও বলতে পারে।

মধ্যপ্রদেশের সিংরাউলি জেলার বুধেলা গ্রামের বীণা বন্দিনী স্কুলের রয়েছে প্রায় পৌণে দু’শ শিক্ষার্থী। যাদের সবাই ইংরেজি, হিন্দির পাশাপাশি স্প্যানিশ ভাষাতেও অনর্গল কথা বলতে পারে। সাবলিলভাবে দু’হাতেও লিখতে পারে।

প্রত্যেক ক্লাশের ফাঁকে দু’হাতে লেখা শেখার জন্য তাদের ১৫ মিনিট বরাদ্দ দিয়ে থাকে স্কুল কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি শেখানো হয় হিন্দি, উর্দু, ইংলিশ, সংস্কৃত, স্প্যানিশ ভাষা। এই স্কুলে বর্তমানে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ানো হচ্ছে।

আরও খবর : কেঁদেই ফেললো কুকুর (ভিডিও)

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিপি শর্মা নামের সাবেক এক সেনা সদস্য ১৯৯৯ সালে এই স্কুলটি চালু করেন। প্রথম থেকেই তিনি শিক্ষার্থীদের দু’হাতে লেখার উপর জোর দেন।

এই প্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমকে বিপি শর্মা জানান, সেনাবাহিনীতে কাজ করার সময় একটি পত্রিকা থেকে তিনি প্রথম দু’হাতে লেখার কথা জানতে পারেন। এরপর থেকে বিষয়টি নিয়ে আগ্রহী হয়ে ওঠেন তিনি।

বিপি শর্মা জানান, বিশ্বে মাত্র এক ভাগ লোক দু’হাতে লেখার ক্ষমতা রাখে। কিন্তু চেষ্টা করলে অনেকেই এই ভাবে লেখার ক্ষমতা অর্জন করতে পারেন।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, মধ্যপ্রদেশের এই স্কুলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে অধিকাংশই দলিত এবং আদিবাসী সম্প্রদায়ের। এদের মধ্যে আবার এমন অনেকে রয়েছে, যারা তাদের বংশের মধ্যে প্রথম স্কুলে শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ পেয়েছে।

বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশের পর শুধু ভারতই নয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, দক্ষিণ কোরিয়ার মতো উন্নত দেশগুলোও আগ্রহী হয়ে উঠেছে। সেসব দেশের একাধিক প্রতিনিধি দল স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগও করেছে।

এসএইচ-১৮/২০/০৪ (অনলাইন ডেস্ক, তথ্যসূত্র : ইন্ডিয়া টুডে)