চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপিয়ে তরুণীর ধর্ষণ রুখলেন পুলিশ

প্রকাশিতঃ এপ্রিল ২৫, ২০১৮ আপডেটঃ ৭:১৩ অপরাহ্ন

দেশে যে সময় একের পর এক ধর্ষণের ঘটনা এবং পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার খবর সামনে আসছে, সেই সময় এক রেল পুলিশের এক কনস্টেবল নিজের জীবন বিপন্ন করে এক তরুণীর ধর্ষণ রুখে নজির সৃষ্টি করলেন। ধর্ষণের চেষ্টার দায়ে ২৬ বছরের এস সত্যরাজকে পরে গ্রেপ্তার করে আরপিএফ।

রাতের ট্রেনে চেন্নাইয়ের ভেলাচেরি থেকে চেন্নাই বিচ যাচ্ছিলেন রেল পুলিশের নাইট স্কোয়াডের সদস্য সাব-ইন্সপেক্টর এস সুব্বাইয়া, কনস্টেবল কে শিবাজি, এবং আরও এক কনস্টেবল।

রাত ১১টা ৪৫ নাগাদ ট্রেন যখন চিন্তাদ্রিপেট স্টেশন ছাড়ে, ঠিক তখনই পাশের কোচ থেকে এক মহিলার আর্ত চিত্‍কার শুনতে পান তাঁরা। ট্রেনে ভেস্টিবিউল না থাকায় পরের স্টেশন পার্ক টাউনে ট্রেন ঢোকা পর্যন্ত অপেক্ষা করেন তাঁরা।

প্ল্যাটফর্মে ট্রেন একটু আস্তে হতেই চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপ মারেন কনস্টেবল শিবাজি। চলন্ত ট্রেনের পাশে পাশে ছুটে পরের কোচে লাফিয়ে ওঠেন তিনি। দেখেন, এক তরুণীর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েছে এক ব্যক্তি।

অজ্ঞান ওই তরুণীর জামা-কাপড় ছিঁড়ে গিয়েছে , ঠোঁট কেটে রক্ত পড়ছে। সত্যরাজ নামে ওই ব্যক্তিকে ধাক্কা মেরে সরিয়ে দেন তিনি। ততক্ষণে ট্রেন পুরোপুরি থেমে যাওয়ায় পাশের কোচ থেকে ছুটে এসেছেন অন্যরাও।

তরণীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল। কনস্টেবল শিবাজি-র ৫০০০ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে।

আরএম-০৩/২৫/০৪ (অনলাইন ডেস্ক, তথ্যসূত্র: এই সময়)