মেয়েকে ১ হাজার ৮০০ বার ধর্ষণ!

প্রকাশিতঃ মে ১৩, ২০১৯ আপডেটঃ ৭:৩৮ অপরাহ্ন

পৈশাচিক, ভয়ঙ্করতম কিংবা ন্যাক্কারজনক; কোনো বিশেষণই বোধহয় এ ঘটনাটির ক্ষেত্রে খাটে না। এমনই নিন্দনীয় এক ঘটনা ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে।

ব্রিসবেনের উত্তর-পশ্চিম প্রান্তে অবস্থিত কিঙ্গারয়ে শহরে এক ব্যক্তি তার সৎ মেয়েকে গত দশ বছর ধরে প্রায় ১ হাজার ৮০০ বার ধর্ষণ করেছেন।

ওই কিশোরী গর্ভবতী হয়ে পড়লে ঘটনা জানাজানি হয়। তবে এ বারের গর্ভবতী হওয়ার আগেও ১৯ বছর বয়সী ওই কিশোরীর যখন বয়স ১৫ ছিল তখনও আরেকবার গর্ভবতী হয়ে পড়েছিলেন।

সে সময় ওই কিশোরী তার সৎ বাবার এক সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে যে এত বছর ধরে ওই কিশোরী ধর্ষণের শিকার হওয়ার পরও চুপ করে ছিলেন কেন? কিংবা তার মাকে জানাননি কেন?

এ বিষয়ে ব্রিসবেনের পুলিশ বলছে, তার মা চাকরির সুবাদে আলাদা জায়গায় থাকতেন। আর সেই সুযোগ নিয়ে ৪১ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি তার সৎ মেয়েকে নিয়মিত ধর্ষণ করতেন।

কিন্তু কখনও ওই কিশোরী মুখ খুলতে পারেননি খুন হয়ে যাওয়ার ভয়ে। এমনকি প্রতিবার ধর্ষণ করার পর তার পেটে সজোরে লাথি মারতেন পাষণ্ড ওই সৎ বাবা। আরো নানাভাবে তাকে নিপীড়ন করা হতো।

এক সময় মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন ওই কিশোরী। শেষ পর্যন্ত ওই কিশোরী তার মায়ের কাছে পুরো ঘটনা জানান। পরে তার মা পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন।

নৃশংসভাবে মেয়েকে নিপীড়ন ও ধর্ষণের দায়ে পাষণ্ড ওই বাবাকে ১৫ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ব্রিসবেনের আদালতের বিচারক।

এসএইচ-২৪/১৩/১৯ (অনলাইন ডেস্ক)