বৃদ্ধা মাকে পুড়িয়ে মারল ছেলে

প্রকাশিতঃ জুলাই ৮, ২০১৯ আপডেটঃ ৮:১৫ অপরাহ্ন

পারিবারিক কিছু বিষয় নিয়ে বাবার সঙ্গে ঝগড়া হয়েছিল ছেলের। সেই রাগে বাবাকে মারধরের পর বিছানায় শয্যাশায়ী মাকে (৭৫) জীবন্ত পুড়িয়ে মেরেছে ছেলে। এমন পাশবিক ঘটনা ঘটেছে ভারতের উড়িষ্যা রাজ্যের বলাঙ্গির জেলার রাধাবাহালা গ্রামে। ইতোমধ্যে এই ছেলেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রের বরাতে ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, অসুস্থ স্ত্রী ও ছেলে সন্তোষকে নিয়ে বলাঙ্গির জেলার রাধাবাহালা গ্রামে বসবাস করেন রুশি খারসেল। প্রথমে কোনও সমস্যা না থাকলেও পারিবারিক কিছু বিষয় নিয়ে কয়েকদিন ধরে বিবাধ চলছিল বাবা ও ছেলের মধ্যে।

গত শনিবার সেই বিবাধ চরম আকার ধারণ করে। বচসার মাঝে বাবাকে একটি কাঠের টুকরো দিয়ে মারধর করে সন্তোষ। তারপর বিছানায় শয্যাশায়ী থাকা মায়ের শরীরে আগুন ধরিয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় সে। পরে রুশির চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে তার স্ত্রীকে হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু, সেখানকার চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এ ঘটনা সম্পর্কে বেলপদা থানার আইসি সচিদানন্দ বারিয়া বলেন, শনিবার সকাল ৭টা ১১মিনিটে আমাদের থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়।

তাতে উল্লেখ করা হয়েছিল যে, সন্তোষ নামে এক ব্যক্তি নিজের মাকে পুড়িয়ে মেরেছে। এরপরই ঘটনাস্থলে আমরা যাই। সেখানে গিয়ে জানতে পারি, ৭ বছর ধরে বিছানায় শয্যাশায়ী ছিলেন রুশির স্ত্রী। ছেলেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এসএইচ-০৮/০৮/১৯ (অনলাইন ডেস্ক)