৬০ বছর পর লাইব্রেরির বই ফেরত দিল ক্যামব্রিজের ছাত্র

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ২, ২০১৯ আপডেটঃ ৯:১৪ অপরাহ্ন

বিশ্বের নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে প্রথম সারির একটি হলো ক্যামব্রিজ। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় আজ থেকে ৬০ বছর আগে কালচার অ্যান্ড সোসাইট অব আফ্রিকা নামের একটি বই নিয়েছিল এক ছাত্র। সম্প্রতি তিনি বইটি ফেরত দিয়েছেন।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, পাঁচ যুগ পর বই ফেরত পাওয়ার খবর নিজেদের টুইটার পেজে জানিয়েছে ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় লাইব্রেরি কর্তৃপক্ষ। পর ফেরত পেলো একটি বই। এতদিন ধরে বই আটকে রাখলেও লাইব্রেরি কর্তৃপক্ষ সাবেক ওই ছাত্রের জরিমানা মওকুফের অঙ্গীকার করেছে।

ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান নিয়ম অনুযায়ী কোনো শিক্ষার্থী যদি লাইব্রেরি থেক বই ধার নেয়ার পরও নির্ধারিত সময়ে বেশি নিজের কাছে রেখে দেন তাহলে তাকে অতিরিক্ত প্রতি সপ্তাহের জন্য দেড় পাউন্ড করে জরিমানা গুণতে হয়।

বর্তমান সময়ের হিসেবে সপ্তাহে দেড় পাউন্ড করে যদি সাবেক ওই ছাত্রকে জরিমানা করা হয় তাহলে মোট জরিমানার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে প্রায় ৪ হাজার ৭০০ পাউন্ড। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ৪ লাখ ৯০ হাজার টাকা।

গত বুধবার গনভিল অ্যান্ড কেইউস কলেজের একজন সাবেক ছাত্র বইটি কর্তৃপক্ষকে ফেরত দিয়েছেন। পরে সেটি নিয়ে যাওয়া হয় মূল বিশ্ববিদ্যালয় অর্থাৎ ক্যামব্রিজের লাইব্রেরিতে। এক টুইট বার্তায় লাইব্রেরি কর্তৃপক্ষ লিখেছে, ‘বেটার লেট দ্যান নেভার।’ সেখানে জরিমানা মওকুফের কথাও উল্লেখ করেছে তারা।

ক্যামব্রিজ লাইব্রেরি কর্তৃপক্ষ বলছে, ‘হয় এটা একটি অসাধারণ বই অথবা তিনি খুবই ধীরগতির একজন পাঠক। তবে একজন মুখপাত্র বলছেন, এটি ঠিক পরিষ্কার নয় যে ওই শিক্ষার্থী এই দীর্ঘ সময় ধরে বইটি ভুলবশত নাকি ইচ্ছাকৃত নিজের কাছে রেখে দিয়েছিলেন।

তবে লাইব্রেরি সিস্টেমে এখনো বইটিকে নিখোঁজ দেখাচ্ছে। লাইব্রেরি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা বইটি ক্যাটালগ শাখায় রেখে দিয়েছেন। শিগগিরই বইটিকে তালিকাভুক্ত করে নির্ধারিত জায়গায় রাখা হবে। বিষয়টি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ অন্যরাও আলোচনা করছেন।

এসএইচ-১৭/০২/১৯ (অনলাইন ডেস্ক)