প্রস্রাবের সঙ্গে বের হচ্ছে ভাত

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ৭, ২০১৯ আপডেটঃ ২:১৫ অপরাহ্ন

গত মাসের মাঝামাঝি চিকিৎসক নরেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়ের কাছে এসেছিলেন তেইশ বছরের এক যুবক। তার সমস্যা হলো, অনেকদিন ধরেই প্রস্রাবের সঙ্গে ভাত বের হচ্ছে। তা পরীক্ষা করতে তিনি রোগীকে ভাত খাওয়ানোর পর দেখলেন কথা ঠিক। সঙ্গে সঙ্গে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে শুরু করলেন চিকিৎসা।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। আর রোগী হলেন জেলা শহর বর্ধমানের অদূরের নেড়োদিঘির বাসিন্দা। নাম শেখ রফিকুল ইসলাম। হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে জানা গেল, রফিকুল ‘ইউরেটেরো ডিওডেনাল ফিস্টুলা’ রোগে আক্রান্ত।

বিরল এই রোগের কথা জানার পর বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে কর্তৃপক্ষ নরেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে দশ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করে। মঙ্গলবার তারা সফলভাবে শেখ রফিকুল ইসলামের অস্ত্রোপচার করেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, রোগী এখন সুস্থ আছে।

মঙ্গলবার সকালে শুরু হওয়া ওই অস্ত্রোপচার চলে দুই ঘণ্টা ধরে। বর্ধমান মেডিকেল কলেজের সার্জারি বিভাগের প্রধান নরেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় বলেন, গত একশো বছরে গোটা বিশ্বে এমন রোগী পাওয়া গেছে মাত্র ১১ জন। তাই এ রোগটি বিশ্বে বিরল।

হাসপাতালে আসার পর দেখা যায় রফিকুলের খাদ্যনালিতে ফুটো রয়েছে। ফলে খাদ্যনালির নীচের অংশ ‘ডিওডেনম’ থেকে একটি সরু নালা তৈরি হয়ে কিডনির ‘ইউরেটর’ প্রবাহিত হয়েছে। এর মাধ্যমেই খাদ্যবস্তু যাচ্ছে মূত্রথলিতে। তাই রোগটির নাম ‘ইউরেটেরো ডিওডেনাল ফিস্টুলা’।

রফিকুলের মা নূরজাহান বিবি বলেন, ছেলেসহ তিনি একটি পাটকলে কাজ করেন। ছেলের এই রোগ প্রথম দেখা দেয় আট বছর বয়সে। তখন তিনি ভাবতেন হয়তো গ্যাসট্রিকের সমস্যা। ছেলেকে বেশি বেশি পানি খেতে বলতেন। কিন্তু ইদানিং সমস্যা বাড়ে। রফিকুল কিছুই হজম করতে পারছিল না।

রোগীর মামা নাজিম উদ্দিন বলেন, অস্ত্রোপচারের পরে রফিকুলের সঙ্গে তার কথা হয়েছে। সে এখন ভালো আছে। পরিবার জানিয়েছেন, বাইরে এই অস্ত্রোপচারের জন্য প্রায় দেড় লাখ টাকা খরচ হবে বলা জানানো হলেও এই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তা বিনামূল্যে করেছে।

হাসপাতালের সহকারী প্রধান অমিতাভ সাহা বলেন, ‘গত ১৫ বছর ধরে রফিকুল এই রোগে ভুগছিলেন। অনেকে তাকে মানসিক রোগী বলে অভিহিত করে। আমাদের সিনিয়র সার্জন নরেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় প্রকৃত রোগটি ধরতে পারেন। বিশ্বে এই রোগ বিরল। আমাদের চিকিৎসকদের নিয়ে আমরা গর্বিত।’

এসএইচ-০৮/০৭/১৯ (অনলাইন ডেস্ক)