মেয়ের লাশ নিতে বাধা দেওয়ায় বাবাকে লাথি মারছে পুলিশ

প্রকাশিতঃ ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০২০ আপডেটঃ ৪:১৫ অপরাহ্ন

পুলিশ যাতে কিশোরীর লাশ নিয়ে যেতে না পারে; তাই মাটিতে শুয়ে পড়েন তার বাবা। তখনই ওই কিশোরীর বাবাকে এলোপাতাড়ি লাথি মারতে শুরু করেন ভারতীয় পুলিশ। তেলেঙ্গানার সাঙ্গা রেড্ডি জেলার এই ভিডিও সামাজিকমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

সোমবারের ওই ঘটনার ভিডিওতে দেখা গেছে, রাস্তার ওপর দিয়ে একটি মেয়ের কফিন টেনে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ, তার বাবা রাস্তা আটকানোর চেষ্টা করছেন।

প্রচণ্ড মারধরের পরেও কিশোরীর বাবাকে সেখানেই পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

চন্দনা দীপ্তি নামে এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, পরিবারসহ কয়েকজন বিক্ষোভকারী মরদেহ ফিরিয়ে নিতে চেয়েছিল পুলিশ হেফাজত থেকে। যখন পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য দেহ নিয়ে যেতে চেয়েছিল, সেই সময় দুর্ভাগ্যজনক ঘটনাটি ঘটে।

কিশোরীর মৃত্যুর কীভাবে হল, তা এখনও জানা যায়নি।

কলেজের শৌচাগারে কিশোরীর মরদেহ উদ্ধারের পর একটি আত্মহত্যার মামলা রুজু করা হয়েছে। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে অপরাধমূলক অবহেলার মামলা রুজু করা হয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে।

কলেজের ভুমিকা নিয়ে অভিযোগ করেছে কিশোরীর পরিবার। তাদের দাবি, মৃত্যুর কয়েকদিন আগে থেকে জ্বর এবং হতাশায় ভুগছিল ওই কিশোরী।

এসএইচ-১৬/২৭/২০ (অনলাইন ডেস্ক)