গোলমরিচের প্রভাবে বদলে যেতে পারে আপনার জীবন

প্রকাশিতঃ জানুয়ারী ১১, ২০১৮ আপডেটঃ ৩:২৮ অপরাহ্ন

গোলমরিচ আদতে একটা ছোট্ট জিনিস হলেও, রোজ গোলমরিচ খাওয়ার অভ্যাস বদলে দিতে পারে আপনার গোটা জীবন। ভাবছেন কী ভাবে?

গোলমরিচ গাছের আদি উৎস দক্ষিন আফ্রিকা। ওই গাছের ফল গুঁড়ো করে খাবারে ব্যবহার করা হয়। পশ্চিমি দেশগুলিতে প্রায় প্রতিটি খাবারেই গোলমরিচের উপস্থিতি দেখতে পাওয়া যায়। এই গোলমরিচ শুধু খাবারের স্বাদই বৃদ্ধি করে না, এর মধ্যে  নানান রকম ঔষধি গুণও বর্তমান।

যেমন গোলমরিচের মধ্যে আছে প্রচুর পরিমানে ক্যালসিয়াম, মিনারেলস, ফাইবার এবং ভিটামিন ‘এ’ ও ‘সি’। এগুলো ঠান্ডাজনিত রোগ আপনার থেকে দূরে রাখে, গ্যাসট্রিকের সমস্যা দূর করে এবং হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে ও আপনার ত্বককে উজ্জ্বল করে তোলে।

এছাড়াও গোলমরিচের মধ্যে পাইপারিন নামের একটি রাসায়নিক উপাদান থাকে, যা থেকে এর ঝাঁজালো স্বাদটা তৈরি হয়। তাই প্রতিদিন খাদ্যতালিকায় গোলমরিচের মতো উপকারি জিনিস রাখলে ঝরতে পারে আপনার বাড়তি ওজনও। সুতরাং আপনার যদি দুধ ছাড়া চা খাওয়ার অভ্যাস থেকে থাকে, তবে এবার থেকে  চিনি ছাড়া চা খাওয়াও শুরু করুন, আর চিনির বদলে চায়ে দিন অল্প একটু গোলমরিচ।

কারণ এই গোলমরিচ একদিকে আপনার বাড়তি ওজনের খেয়াল রাখবে, অন্যদিকে আবার আপনার শরীরে প্রবেশ করে আন্টি ব্যাক্টেরিয়ালের কাজ করবে। এছাড়া গোলমরিচ খেলে পাকস্থলী থেকে নিঃসৃত হয় হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিড, যা খাবার দ্রুত হজম করাতেও সাহায্য করে। এমনকি দাঁত ব্যাথার জন্যও গোলমরিচ উপকারি। গোলমরিচ দিয়ে জল ফুটিয়ে কুলকুচি করলে মিলতে পারে দাঁতের ব্যাথা থেকে উপশম।

এছাড়া গোলমরিচে ক্যাপসাইসিন নামের ক্যান্সার প্রতিরোধক উপাদান রয়েছে, যা ক্যানসার কোষের সম্ভাব্য বিস্তার রোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

তাই ডাক্তাররাও আপনার খাদ্যতালিকায় গোলমরিচ রাখার নির্দেশ দিয়ে থাকেন অনেক সময়। আপনিও তাই আজ থেকেই গোলমরিচ খাওয়া শুরু করুন আর এই শীতের মরশুমে নিজেকে করে তুলুন ফিট এন্ড ফাইন।

আরএম-২৩/১১-০১ (স্বাস্থ্য ডেস্ক, তথ্যসূত্র: সংবাদপ্রতিদিন)