গ্রিন টি-র পরে এবার ব্লু টি, শুধু ওজনই কমায় না, রয়েছে আরও গুণাগুণ

প্রকাশিতঃ জানুয়ারী ৯, ২০১৯ আপডেটঃ ৪:০৯ অপরাহ্ন

গ্রিন টি ও তার নানা উপকারিতার কথা এখন প্রায় সকলেরই জানা। কিন্তু ‘ব্লু টি’ এখনও সে ভাবে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেনি। যদিও এই হার্বাল ‘চা’-ও নানা গুণে সমৃদ্ধ।

ব্লু টি তৈরি করা হয় অপরাজিতা গাছের পাতা থেকে। এবং নীল রঙের জন্য ব্যবহার করা হয় এই ফুল।

ব্লু টির ব্যবহার শুরু হয় মূলত দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশগুলিতে, যার মধ্যে তাইল্যান্ড ও ভিয়েতনাম উল্লেখযোগ্য। সেখানে রাতের খাবারের পরে এই পানীয় পান করে অনেকে। লেবুর রস ও মধু সহযোগে এটি তৈরি করা হয়।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ব্লু টি আদতে হেলথ ড্রিঙ্ক। ‘ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অফ ওবেসিটি অ্যান্ড রিলেটেড মেটাবলিক ডিসওর্ডারস’-এর এক সমীক্ষা অনুযায়ী, মোটা হওয়ার সব রকম টিস্যু ও ফ্যাটি লিভার সংক্রান্ত অসুখ হওয়ার থেকে বাঁচায় ব্লু টি।

বিশেষজ্ঞদের মতে, দিনে দু’বার ব্লু-টি খেলে স্বাভাবিক ভাবেই শরীরের ক্যালোরি বার্ন হয়।

ব্লু টি খেলে ফ্যাটি লিভার ভাল থাকে। পেটের কাছে মেদ বাড়ে না।

ব্লু টিতে রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামাটোরি গুণাগুণ যা শরীরের টক্সিফিকেশন রোধ করে।

রোজ ব্লু টি খেলে উদ্বেগ ও মানসিক চাপ কম হয় বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

ব্লু টিতে রযেছে অ্যান্টি-গ্লাইসেশন ও ফ্ল্যাভোনয়েড যা ত্বককে মসৃণ রাখে। এটি কাজ করে অ্যান্টি-এজেং হিসেবেও।

ব্লু টি-র পাশাপাশি জনপ্রিয় হয়েছে পার্পেল টি-ও। এটি নতুন কিছুই নয়, ব্লু টি-এর সঙ্গে লেবুর রস মেশালেই তার রং পরিবর্তন হয়ে যায়।

আরএম-১৪/০৯/০১ (স্বাস্থ্য ডেস্ক, তথ্যসূত্র: এবেলা)