গর্ভাবস্থায় শরীর চুলকানো বড় বিপদের আভাস নয়তো

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৯, ২০১৯ আপডেটঃ ৩:২৫ অপরাহ্ন

গর্ভাবস্থায় শরীরের বিভিন্ন অংশে চুলকানি হওয়া খুবই স্বাভাবিক একটা ব্যাপার। পেট স্ফীত হয়ে যাওয়ার কারণে চামড়ায় টান পড়ে চুলকানি হয়।

হালকা চুলকানি স্বাভাবিক বিষয়, তবে সেটি যদি মাত্রাতিরিক্ত হয় তাহলে চিন্তার বিষয়। তাই মা হওয়ার সময় অসহ্য চুলকানি হলে মোটেও তা অবহেলা করবেন না।

গর্ভাবস্থায় মাত্রাতিরিক্ত চুলকানি একটি রোগ বলেই মনে করেন চিকিৎসকরা। ডাক্তারি পরিভাষায় এর নাম ইনট্রাহেপাটিক কোলেস্টাসিস অফ প্রেগন্যান্সি বা আইসিপি। লিভারের সমস্যা থেকেই আইসিপি হতে পারে।

আইসিপির কারণে গর্ভবতী নারীর বিশেষ কোনো শারীরিক ক্ষতি না হলেও তার গর্ভের সন্তানের জন্য বড় বিপদ অপেক্ষা করে।এজন্য গর্ভাবস্থায় অতিরিক্ত চুলকানি হলে অবশ্যই চিকিৎসক দেখাতে হবে।

আইসিপির চিকিৎসা না হলে নির্দিষ্ট সময়ের আগেই সন্তানের জন্ম হয়ে যেতে পারে। গর্ভাবস্থার দ্বিতীয় ও তৃতীয় ট্রিমেস্টারে আইসিপি হতে পারে।

বিশেষ করে রাতের বেলা এর প্রকোপ বাড়ে। চুলকানির সঙ্গে খিদে কমে যাওয়া, ক্লান্তি ও ত্বক হলদে হয়ে যাওয়াও আইসিপির চিহ্ন।

আরএম-০৫/০৯/০৮ (স্বাস্থ্য ডেস্ক)