সকালের চায়ে মেশান এক চিমটে হলুদ; হাতে নাতে ফল পাবেন

প্রকাশিতঃ জানুয়ারী ১৪, ২০২০ আপডেটঃ ৩:২৭ অপরাহ্ন

বাঙালি মাত্রেই চা বিলাসী, একথা কারোর অজানা নয়। মধু চা, লেবু চা, দুধ চা, পাতা চা, গুঁড়ো চা, সব নিয়েই বাঙালির বড্ড বাড়াবাড়ি! কিন্তু হলুদ চা মিস করে গিয়েছেন অনেকেই। জানেন কি হলুদ চা খেলে কি কি উপকার পাওয়া যেতে পারে? হলুদ চা বানানো যেমন সহজ তেমনি এটি একটি সুস্বাদু পানীয়ও বটে। এই চা পান করলে অনেক রকম রোগ ব্যাধির প্রকোপ কমে যায়। আসুন জেনে নি হলুদ চা বানানোর পদ্ধতি।

কীভাবে বানাবেন হলুদ চা?

প্রথমে একটি পাত্রে ১ কাপের একটু বেশী পরিমাণ জল নিয়ে গরম করুন। এরপর জল গরম হয়ে গেলে তাতে অল্প পরিমানে (এক চিমটে) হলুদ মেশান। এরপর এই হলুদ মেশানো জলটিকে ফোটান। এরপর এটিকে ১০ মিনিট রেখে দিন। তারপর জলটিকে ছেঁকে নিন। এবার ছেঁকে নেওয়া জলে গোলমরিচ, লেবুর রস ও মধু মিশিয়ে নিন। ব্যাস হলুদ চা তৈরি।

হলুদ মেশানো চা পান করলে কী হয়?

দৃষ্টিশক্তি ভালো হয়

 দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধিতে বিশেষ সহায়ককারী উপাদান হল হলুদ। হলুদ চায়ে পাওয়া যাচ্ছে হলুদের এই উপকারী উপাদান যা চোখের রেটিনাকে রক্ষা করে। ফলে দৃষ্টিশক্তি হারানোর ভয় থাকেনা।

রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়

হলুদে উপস্থিত কারকিউমিন রক্তে জমতে থাকা কোলেস্টেরলের মাত্রাকে কমিয়ে দেয় ফলে হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে যায়।

ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়ায়

নিয়মিত হলুদ চা পান করলে ত্বক দীর্ঘদিন তার উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে সক্ষম হয়।

ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়

হলুদের ভেতরে থাকা অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি প্রপার্টিজ ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট শরীরে ক্যানসার কোশ জন্মাতে দেয় না।

এছাড়াও হলুদ চা হজম ক্ষমতা বাড়ায়, স্মৃতিশক্তির বিকাশ ঘটায়, ওজন নিয়ন্ত্রণ করে, মাথার খুশকি সমস্যা দূর করে,আর্থারাইটিসের ব্যাথা কমায়।

আরএম-১৫/১৪/০১ (স্বাস্থ্য ডেস্ক)