করোনা রোগীদের জন্য প্যারাসিটামল আসলেই কি মারাত্মক?

প্রকাশিতঃ মার্চ ১৯, ২০২০ আপডেটঃ ৪:২১ অপরাহ্ন

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে যেমন নির্ভরযোগ্য বিশেষজ্ঞ পরামর্শ আসছে, তেমনি পাশাপাশি নানাধরনের ভুয়া খবর এবং অনির্ভরযোগ্য তথ্যও ছড়িয়ে পড়ছে অনলাইনে। সম্প্রতি অনলাইনে এমন খবর ঘুরছে যে, করোনাভাইরাস হলে আইবুপ্রুফেন ওষুধ ঝুঁকির মাত্রা আরো বাড়িয়ে দেবে। আসলেই কি তাই?

বিবিসির রিয়ালিটি চেক বিভাগকে চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা করোনাভাইরাসের উপসর্গ মোকাবেলার জন্য আইবুপ্রুফেন না খাওয়ার পরামর্শই তারা দিচ্ছেন। তবে তারা একথাও বলেছেন যে, যারা শারীরিক সমস্যার জন্য ইতোমধ্যেই আইবুপ্রুফেন খাচ্ছেন, তারা যেন চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া এই ওষুধ খাওয়া বন্ধ না করেন।

বিবিসির রেচেল শ্রেইয়ার, জ্যাক গুডম্যান এবং অ্যালিস্টেয়ার কোলম্যানের রিপোর্টে বলা হয়েছে, অনেকেই ব্যথা বা প্রদাহ উপশমের জন্য আইবুপ্রুফেন খান। সাধারণত জ্বর বা ঠাণ্ডা লাগার মত উপসর্গ উপশমের জন্য প্যারাসিটামল এবং আইবুপ্রুফেন দুটোই ভাল কাজ করে। তাপমাত্রা কমাতে ওষুধ দুটি বেশ উপযুক্ত।

তবে বিবিসির বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আইবুপ্রুফেন এবং স্টেরয়েডবিহীন অন্য প্রদাহনাশক ওষুধ সবার জন্য উপযুক্ত নয়। এসব ওষুধে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হতে পারে; বিশেষ করে যাদের হাঁপানি, হৃদরোগ এবং রক্ত সঞ্চালনে সমস্যা আছে।

যদিও যুক্তরাজ্যের জাতীয় স্বাস্থ্য ব্যবস্থা বা এনএইচএস-এর ওয়েবসাইটে আগে পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল, করোনাভাইরাস জ্বরে প্যারাসিটামল এবং আইবুপ্রুফেন দুটোই খাওয়া যেতে পারে।

কিন্তু পরে তারা তাদের পরামর্শ বদলে দিয়েছেন। এখন তারা বলছে, আইবুপ্রুফেন করোনাভাইরাসকে আরও খারাপ করবে কিনা সে সম্পর্কে জোরালো কোন তথ্যপ্রমাণ এখনও নেই, তবে যতক্ষণ না আরও তথ্য পাওয়া যাচ্ছে, ততক্ষণ করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবেলায় প্যারাসিটামল খান। যদি চিকিৎসক একথা না বলেন যে, প্যারাসিটামল আপনার জন্য উপযুক্ত নয়।

আইবুপ্রুফেন করোনাভাইরাসের সংক্রমণকে বাড়িয়ে দেয় কিনা তা এখনও পর্যন্ত পরিস্কারভাবে জানা যায়নি। যাদের স্বাস্থ্য ভাল কিংবা যাদের কোন স্বাস্থ্যগত সমস্যা আছে তাদের ওপর আইবুপ্রুফেন কী ধরনের প্রভাব ফেলে তাও অজানা। লন্ডন স্কুল অফ হাইজিন অ্যান্ড ট্রপিকাল মেডিসিনের ডা. শারলোট ওয়ারেন-গাশ বলছেন, যাদের কোনধরনের স্বাস্থ্য ঝুঁকি রয়েছে, তাদের প্যারাসিটামল খাওয়াটাই যুক্তিসঙ্গত হবে বলে মনে হয়।

কোভিড নাইনটিন রোগের সঙ্গে আইবুপ্রুফেন ওষুধের সম্পর্ক নিয়ে কোন গবেষণা হয়নি।

তবে শ্বাসযন্ত্রের অন্য প্রদাহে এই ওষুধের ব্যবহার থেকে দেখা গেছে, ওই ধরনের সমস্যায় আইবুপ্রুফেন রোগের জটিলতা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে বা রোগ আরও মারাত্মক হয়েছে। কিন্তু সেটা শুধু এই ওষুধের কারণে হয়েছে কিনা সেটা জানা যায়নি। কোন কোন বিশেষজ্ঞ মনে করেন আইবুপ্রুফেনে প্রদাহ নাশক যেসব উপাদান আছে সেগুলো শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে কমিয়ে দেয়।

আরএম-১৬/১৯/০৩ (স্বাস্থ্য ডেস্ক)