নেপালে প্রতি ১০ জনে ১ জন পুরুষ বাল্যবিয়ের শিকার হয়

প্রকাশিতঃ জুন ৮, ২০১৯ আপডেটঃ ৭:০০ অপরাহ্ন

ছেলেদের বাল্যবিয়ের প্রবণতা বেশি থাকা দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষ ১০টির মধ্যে নেপাল রয়েছে। জাতিসংঘের শিশু তহবিল-ইউনিসেফ’র পক্ষ থেকে প্রথমবারেরমত এবিষয়ে একটি গভীর বিশ্লেষণী প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। সেখানে দেখা যায়, নেপালে ২০ থেকে ২৪ বছর বয়সী পুরুষের প্রতি ১০ জনের মধ্যে অন্তত ১জন বাল্যবিয়ের শিকার হয়েছে। পিটিআই

বিশ্বের ৮২টি রাষ্ট্রের থেকে তথ্য নিয়ে গবেষণাটি করা হয়। এতে দেখা যায়, নেপাল ছাড়াও পুরুষের বাল্যবিয়ে বেশি হয় আফ্রিকা, লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবিয়ান, দক্ষিণ এশিয়া এবং পূর্ব এশিয়া ও প্রসান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলোতে।

ইউনিসেফ এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর হেনরিটা ফোর জানান, ‘বিয়ে একটি শিশুর কাছ থেকে তার ছোটবেলা কেড়ে নেয়। ছোট ছেলেদের জোর করে বিয়ে দিয়ে তাদেরকে এমন দায়িত্বের পাথরে চাপা দেওয়া হয় যারজন্য তারা শরীর কিংবা মন কোনদিক দিয়েই প্রস্তুত নয়। বাল্যবিয়ে খুব অল্প বয়সেই একজনকে পিতা বানিয়ে দেয় এবং একইসাথে তার কাঁধে পুরো একটি পরিবারের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়।’

তথ্যমতে, বাল্যবিবাহে সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক তালিকার শীর্ষে রয়েছে। সেখানে ২৮ শতাংশ পুরুষের শিশু বয়সেই বিয়ে হয়। এছাড়া, দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা নিকারাগুয়ায় এই হার ১৯ শতাংশ এবং মাদাগাস্কার ১৩ শতাংশ পুরুষ বাল্যবিয়ের শিকার হয়।

অন্যদিকে, ১০ স্থান অধিকারকারী নেপাল দক্ষিণ এশিয়ার একমাত্র দেশ যেখানে ছেলেশিশু ও মেয়েশিশু দুই ক্ষেত্রেই বাল্যবিয়ের ঘটনা অহরহই ঘটে থাকে।

এসএইচ-২৭/০৮/১৯ (আন্তর্জাতিক ডেস্ক)