ট্রাম্পকে ইমরানের ফোন

প্রকাশিতঃ আগস্ট ১৭, ২০১৯ আপডেটঃ ৭:৫৯ অপরাহ্ন

পাকিস্তান ‘জিহাদ’এর নামে সন্ত্রাস বন্ধ না করলে আলোচনার প্রসঙ্গই ওঠে না, জাতিসংঘের রুদ্ধদ্বার বৈঠকের পরেই সংবাদ মাধ্যমের সামনে গর্জে উঠলেন জাতিসংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত সৈয়দ আকবরউদ্দিন। তার সাফ যুক্তি, জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল সংক্রান্ত বিষয়টি একান্তই ভারতের অভ্যন্তরীণ। খবর দ্য ওয়াল এর।

ভারত সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিলের পরেই পাকিস্তান বিষয়টি নিয়ে জাতিসংঘে আলোচনার দাবি জানিয়ে আসছিল। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে কাশ্মীর নিয়ে আলোচনার জন্য সওয়াল করেছিল পাকিস্তানের দীর্ঘদিনের বন্ধু চীন। সেইমতো শুক্রবার জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠক বসে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে। সেখানে ভারত বা পাকিস্তান কেউ ছিল না। শুধু নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য হিসাবে ছিল চীন।

এদিকে, কাশ্মীর নিয়ে বিভিন্ন দেশের সঙ্গে বারবার কথা বলছে পাকিস্তান। যদিও চীন, মালয়েশিয়া ও তুরস্ক বাদে কেউই তেমন ভাবে সাড়া দেয়নি। এবার সরাসরি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ফোন করেছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে নিজের উদ্বেগ জানিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন ইমরান। জাতিসংঘে বৈঠকের আগে অন্তত ২০ মিনিট কথা বলেছেন তারা। এমনটাই জানিয়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি। কাশ্মীর নিয়ে আলোচনার জন্য জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ গতকাল শুক্রবার রাত ৮টায় জরুরি বৈঠক বসে।

শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি বলেন, আজ প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ফোন দিয়ে কথা বলেছেন। এই অঞ্চলের পরিস্থিতি এবং বিশেষত কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে দু’জন মত বিনিময় করেন।

ট্রাম্প ও ইমরান খান আফগানিস্তান নিয়েও আলোচনা করেন। জুলাইয়েও ইমরান খানের সঙ্গে এক বৈঠকে ট্রাম্প বলেছিলেন, কাশ্মীর সংকটে মধ্যস্থতা করতে তিনি আগ্রহী। তার পরপরই ভারত কাশ্মীর থেকে স্পেশাল স্টেটাস বা বিশেষ মর্যাদা তুলে নেয়। এদিন গোটা বিশ্বকে বার্তা দিয়েছে ভারত।

এসএইচ-১৯/১৯/১৯ (আন্তর্জাতিক ডেস্ক)