হোয়াটসঅ্যাপ ইস্যুতে মোদি সরকারকে দুষলেন মমতা

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২, ২০১৯ আপডেটঃ ৭:৪০ অপরাহ্ন

ইজরায়েলি সংস্থা এনএসও-র তৈরি স্পাইওয়্যার এর মাধ্যমে নজরদারি চালানো হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপে। ভারতের বিজেপি সরকারও এ কথা স্বীকার করে নিয়ে নোটিশ পাঠিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপকে। আর এই ঘটনায় সরাসরি মোদি সরকারকে দায়ী করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বললেন, তার ফোনও ট্যাপ করা হচ্ছে। আর এ সবই হচ্ছে কেন্দ্রের নির্দেশে।

শনিবার ছটপূজো উপলক্ষে খিদিরপুর এলাকায় তক্তাঘাটে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে বক্তব্য রাখার পর বেরিয়ে যাওয়ার সময় উপস্থিত সাংবাদিকরা তাকে সাম্প্রতিক হোয়াটসঅ্যাপের এই নজরদারির ব্যাপারে প্রশ্ন করেন।

তার উত্তরে মমতা বলেন, এটা খুবই চিন্তার বিষয়। আমার ফোন ট্যাপ করা হচ্ছে। আমি সেটা বুঝতেও পারছি। সব কিছুতেই নজরদারি চালানো হচ্ছে। এটা ঠিক নয়। সরকারি কাজকর্ম করতে ব্যাঘাত ঘটনো হচ্ছে।

তারপরেই এই বিষয়ে মোদি সরকারের উপর ক্ষোভ জানান তিনি। মমতা বলেন, এটা ফ্যাক্ট যে ইসরায়েলের এনএসও সংস্থা ফোন ট্যাপ করার ওই সফটওয়্যার কেন্দ্রকে দিয়েছে। এর সঙ্গে দুটি রাজ্যের সরকারও যুক্ত আছে। আমি তাদের নাম বলব না। কিন্তু তারমধ্যে একটি রাজ্যে বিজেপি সরকার রয়েছে।

এই ট্যাপ করার জন্য একটি বিশেষ গাড়ি ব্যবহার করা হচ্ছে। সেই গাড়ির মধ্যে ওই সফটওয়্যার রয়েছে। গাড়ি যেখানে যাচ্ছে সেখানকার ১০ কিলোমিটারের মধ্যে যে কারও ইচ্ছে ফোন ট্যাপ করা কিংবা হোয়াটসঅ্যাপ থেকে তথ্য নিয়ে নিচ্ছে।

এসএইচ-২৩/০২/১৯ (আন্তর্জাতিক ডেস্ক)