হামাসের হামলায় আরও ৬০টি ইসরায়েলি সামরিক যান ধ্বংস

টানা দেড় মাস ধরে ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা ভূখণ্ডে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েল। এর বিপরীতে নিজেদের সক্ষমতা অনুযায়ী ইসরায়েলি আগ্রাসন প্রতিরোধ করছে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সশস্ত্র সংগঠন হামাস।

হামাসকে নিশ্চিহ্ন করার লক্ষ্য নিয়ে ইসরায়েলের এই অভিযান চললেও গোষ্ঠীটির হামলায় গত তিন দিনে ৬০ টিরও বেশি ইসরায়েলি সামরিক যান ধ্বংস হয়ে গেছে। মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা আনাদোলু।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হামাসের যোদ্ধারা গত ৭২ ঘণ্টায় গাজায় ৬০টি ইসরায়েলি সামরিক যান ধ্বংস করেছে বলে সোমবার হামাসের সামরিক শাখা দাবি করেছে। আল-কাসাম ব্রিগেডের মুখপাত্র আবু ওবেইদা বলেছেন, গত তিন দিনে হামলার শিকার এসব ইসরায়েলি সামরিক যানের মধ্যে ১০টি সেনা সদস্য বহনকারী যানও রয়েছে।

তিনি উল্লেখ করেছেন, গাজা উপত্যকার বেশ কয়েকটি এলাকায় ইসরায়েলি বাহিনীর সঙ্গে হামাসের ‘তীব্র সংঘর্ষ’ চলছে।

তিনি আরও বলেছেন, ‘গাজা শহরে একটি সেনাবাহী গাড়িতে হামাসের হামলার পর কিছু সৈন্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল মনে করে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী তাদের ওপর বোমাবর্ষণ করেছে বলে আমরা সন্দেহ করছি।’

উল্লেখ্য, গত ৭ অক্টোবর থেকেই গাজায় বিমান হামলা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েলি বাহিনী। এছাড়া ইসরায়েলের এই বিমান হামলা থেকে বাদ যাচ্ছে না গাজার কোনও অবকাঠামো। তারা মসজিদ, গির্জা, স্কুল, হাসপাতাল ও বেসামরিক মানুষের বাড়ি-ঘর সব জায়গায় হামলা চালিয়ে আসছে।

ফিলিস্তিনি সরকারের মিডিয়া অফিস জানিয়েছে, অবরুদ্ধ গাজা ভূখণ্ডে ইসরায়েলি বর্বর হামলায় নিহতের সংখ্যা ইতোমধ্যেই ১৩ হাজার ৩০০ জনে পৌঁছেছে। নিহত এসব ফিলিস্তিনিদের মধ্যে শিশু ও অপ্রাপ্তবয়স্কদের সংখ্যাই সাড়ে ৫ হাজারের বেশি।

এছাড়া হামলায় নিহতদের মধ্যে সাড়ে তিন হাজারেরও বেশি নারী রয়েছেন। ইসরায়েলি হামলায় আহত হয়েছেন আরও ৩০ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি।

অন্যদিকে ইসরায়েলি মিডিয়ার দাবি, গত ২৭ অক্টোবর গাজায় ইসরায়েলি স্থল অভিযান শুরুর পর থেকে অন্তত ৬৬ ইসরায়েলি সেনা নিহত হয়েছে।

এসএ-০৬/১১/২১ (আন্তর্জাতিক ডেস্ক)