পিটিয়ে ছাত্রলীগ নেতার দাঁত ভেঙে দিলেন ডিবির এসআই

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ২, ২০১৯ আপডেটঃ ৫:৩০ অপরাহ্ন

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা জহুরুল ইসলামকে হেলমেট দিয়ে পিটিয়ে দাঁত ভেঙে দিয়েছেন গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) এক উপপরিদর্শক (এসআই)। এমন অভিযোগ করেছেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাকারিয়া হোসেন ও জহুরুল ইসলামের বাবা লুৎফর রহমান।

রোববার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। ডিবির এসআই আমিনুল ইসলামের হাতে মারধরের শিকার হন ছাত্রলীগ নেতা জহুরুল। রোববার গভীর রাতে পুলিশি পাহারায় জহুরুলকে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত জহুরুল ইসলাম পাঁচবিবি উপজেলার ধরঞ্জির উচনা গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে। জহুরুল পাঁচবিবি উপজেলার মহিপুর হাজী মহসিন সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী এবং উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

জহুরুলের বাবা লুৎফর রহমান বলেন, রোববার বিকেলে উচনা মাদরাসা মাঠে বন্ধুদের সঙ্গে খেলছিল জহুরুল। এ সময় ডিবির এসআই আমিনুল ইসলাম মাইক্রোবাসযোগে সেখানে পৌঁছেন। পরে জহুরুলকে মাইক্রোবাসে জোর করে তুলে কিছু দূর নিয়ে গালাগাল করতে থাকেন এসআই। একপর্যায়ে হেলমেট দিয়ে মাথায় ও মুখে আঘাত করতে থাকেন তিনি। এতে জহুরুলের বেশ কয়েকটি দাঁত ভেঙে যায়। পরে তাকে পুলিশি পাহারায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাকারিয়া হোসেন রাজা বলেন, জহুরুল ইসলাম ছাত্রলীগের একনিষ্ঠ কর্মী। সীমান্ত এলাকার ছেলে হলেও খুবই ভালো ছেলে জহুরুল। এখন পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ পাইনি আমরা। যদি তার বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে কোনো অভিযোগ থাকে তাহলে এভাবে না পিটিয়ে থানায় নিতে পারতেন ডিবির এসআই আমিনুল ইসলাম।

কিন্তু তা না করে পিটিয়ে তার দাঁত ভেঙে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। একই সঙ্গে ডিবির এসআই আমিনুল ইসলামের শাস্তি দাবি করছি। আমরা ওই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দেব।

এ ব্যাপারে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুমিনুল হক বলেন, এ ঘটনায় এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে বিষয়টি তদন্ত করে দেখব।

বিএ-১০/০২-০৯ (উত্তরাঞ্চল ডেস্ক)