গোপনাঙ্গ কেটে স্কুল শিক্ষককে হত্যা

প্রকাশিতঃ এপ্রিল ২০, ২০১৮ আপডেটঃ ৩:৫৯ অপরাহ্ন

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলায় একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের গোপনাঙ্গ ও মুখে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। পূর্ব বিরোধের জেরে তিনি হত্যাকাণ্ডের শিকার বলে ধারণা করছে পুলিশ। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

আদমদীঘি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু সাঈদ মো.ওয়াহেদুজ্জামান জানান, শুক্রবার ভোরে উপজেলার ডুমুরিয়া গ্রাম থেকে লাশটি তারা উদ্ধার করেন। নিহত আব্দুর রশিদের (৫৩) বাড়ি ওই গ্রামে।তিনি ডুমুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন।

রাতে বাড়ির পাশে পুকুরে যাওয়ার কথা বলে রশিদ বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। রাতে আর বাড়ি ফেরেননি তিনি। ভোরে বাড়ি থেকে ১০০ গজ দূরে তার বিবস্ত্র লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে তা উদ্ধার করে।

আরও খবর: ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরলেন শিশুসহ ৬ নারী

নিহতের গোপনাঙ্গ ও মুখে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। তাকে কুপিয়ে ও শ্বাসরোধে করে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় ডুমুরিয়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক ও তার স্ত্রী আফরোজা বেগমকে আটক করা হরেছে।

আফরোজার সঙ্গে রশিদের ‘পরকিয়ার’ সম্পর্ক ছিল। এনিয়ে গ্রাম্য শালিশে রশিদের কাছ থেকে এক লাখ টাকা জরিমানাও আদায় করা হয়েছিল। এর জেরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে বলে ধারণা করেন তিনি।

এমও-০৫/২০-০৪ (উত্তরাঞ্চল ডেস্ক)