নিয়মিত জিভ পরিষ্কার না করলে যেসব সমস্যা তৈরি হতে পারে

প্রকাশিতঃ জানুয়ারী ১২, ২০১৯ আপডেটঃ ৬:৪৫ অপরাহ্ন

রোজ সকালে ঘুম ভাঙে পাশের বাড়ির কাকুর জিব ছোলার আওয়াজে। মনে মনে খুব রাগ হয়। কী বিশ্রীভাবে জিব ছোলেন। আবার আমাদের মধ্যেই অনেকে আছেন, যাঁরা জীবনেও জিভ পরিষ্কার করেন না। কেউ কেউ মনে করেন জিভ ছুললে বমি উঠে আসবে, কেউ মনে করেন ব্যাপারটা খুবই জঘন্য। কিন্তু সত্যি বলতে কী, জিভ পরিষ্কার না করলে নানারকম শারীরিক সমস্যা তৈরি হতে পারে।

১.আপনি কি জানেন মুখে দুর্গন্ধ হওয়ার অন্যতম কারণ জিভ পরিষ্কার না করা। শুধু ব্রাশ দিয়ে দাঁত মাজলেই মুখ পরিষ্কার হয় না। জিভের স্বাদকোরকে জমে থাকা জীবাণুর কারণে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হতে পারে। হতে পারে হ্যালিওসিস।

২.মাড়িতে সমস্যা হলে রক্ত বেরোয়, মাড়ি ফুলে যায়। নিয়ম করে জিভ পরিষ্কার না করলেও সেই একই সমস্যা দেখা দিতে পারে। বলা হয় জিঞ্জিভাইটিস।

৩.অপরিষ্কার জিভ জীবণুদের বাসস্থান। বারংবার জীবণুর আক্রমণ হতে পারে মুখে। দাঁত ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। মাড়ি আলগা হয়ে অকালেই দাঁত পড়ে যেতে পারে। অল্প বয়সে ফোকলা না হতে চাইলে এখন থেকে রোজ জিভ পরিষ্কার করতে শুরু করুন।

৪.অপরিষ্কার জিভে উপস্থিত জীবাণু, মরাকোশ ও জমে থাকা খাবারের কণা ধীরে ধীরে স্বাদকোরকের কর্মক্ষমতা নষ্ট করে দিতে পারে। যেকারণে কিছু খেলে খাবারের স্বাদ পাওয়া যায় না।

৫.দীর্ঘদিন ধরে জিভ অপরিষ্কার থাকলে জিভে কালো ছোপ পড়ে। অনেককেই দেখা যায় জিভের কিছু অংশ কালচে। এটা কিন্তু জিভ পরিষ্কার না করার কারণে। কালো ছোপ দূর করতে হলে নিয়ম করে জিভ পরিষ্কার করুন।

৬.ওরাল থ্রাস্ট একধরনের ইস্ট ইনফেকশন। এই সংক্রমণ মুখের ভিতর হয়। মূলত হয় জিভ পরিষ্কার না করার কারণে। জীবণুর সংখ্যা বেড়ে যায় মুখের ভিতর। ফলে জিভে সাদা পরত পড়ে যায়। এই সমস্যায় অনেকেই ভোগেন। বেশিরভাগই হয়তো জানেন না জিভ সাদা হওয়ার কারণ আসলে ইস্ট ইনফেকশন। জিভ পরিষ্কার করে এর থেকে মুক্তি পাওয়া যায় না। এর জন্য ওষুধ, অ্যান্টিবায়োটিক খেতে পরামর্শ দেন ডাক্তাররা।

৭. পেট খারাপ হতে পারে জিভ পরিষ্কার না করলে। জিভে জমা জীবাণু খাবার ও জলের সঙ্গে পেটে চলে যেতে পারে। হতে পারে পেট খারাপ !

আরএম-২৫/১২/০১ (লাইফস্টাইল ডেস্ক)