কিছু অভ্যাসেই ভালো থাকবে দাঁত

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯ আপডেটঃ ২:৪২ অপরাহ্ন

দাঁত মানবদেহের সবচেয়ে শক্ত অঙ্গ। দন্তবিশেষজ্ঞরা বলছেন, শ্বাসে দুর্গন্ধ, দাঁতে ব্যথা, মাড়ি থেকে রক্তপাত, মাঝে মাঝেই দাঁত নড়ে যাওয়া, দাঁতের ফাঁকে পাথর জমে যাওয়া এসব কারণে অকালেই কমে যেতে পারে সেই শক্ত অঙ্গের আয়ু। অথচ দৈনন্দিন জীবনে কিছু পদক্ষেপ করলে এবং খাদ্যাভ্যাসের প্রতি যত্নবান হলেই এই সমস্যা আয়ত্তে আনা সম্ভব। চলুন তবে জেনে নিই সেসব অভ্যাস সম্পর্কে।

# নিয়মিত দুইবার ব্রাশ করলে একটি ব্রাশ তিন সপ্তাহের বেশি ভালো থাকতে পারে না। তাই তিন সপ্তাহ অন্তর বদলে ফেলুন ব্রাশ।

# ব্রাশ করার সময় খুব বেশি চাপ যেমন নয়, তেমনই খুব আলগা চাপও নয়। নরম অথচ দাঁতের ফাঁকে পৌঁছাতে পারে এমন ব্রাশ ব্যবহার করুন।

# সব খাবারের পরেই ভালো করে মুখ ধুতে হবে। এমনকি মিষ্টি, ঠান্ডা পানীয় ও চকোলেট খাওয়ার পরও ভালো করে মুখ ধোয়ার অভ্যাস করান শিশুদের।

# বাজার বা রাস্তাঘাটের যেনতেন মাজন নয়, দাঁতের মাজন বাছার ক্ষেত্রে ভরসা রাখুন চিকিৎসকের উপর। দাঁতের অবস্থা বুঝে পরামর্শ নিন চিকিৎসকের।

# গঠনগত কোনো ত্রুটি বা সমস্যা থাকলে, প্রথম থেকে সতর্ক হোন। শিশুদের দাঁতে কম বয়সেই কোনো সমস্যা ধরা পড়লে তার জন্যও দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করুন।

# লবঙ্গ দাঁতের জন্য বেশ ভালো। চিকিৎসার পাশাপাশি মাঝেমধ্যেই মুখে রাখুন লবঙ্গ।

# অতিরিক্ত চা-কফি ও ধূমপান বন্ধ করতে হবে। তামাকের দাগ দাঁতের সৌন্দর্যের পথে বাধা। এই দাগ সহজে ওঠেও না। তাছাড়া ধূমপানের আরও অনেক অস্বাস্থ্যকর দিক রয়েছে। তাই দূরে থাকুন ধূমপান থেকে।

তবে দাঁতের ক্ষতি ইতিমধ্যেই কিছুটা হয়ে গেলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন দ্রুত। অনেক সময় তা করতেও আমরা দেরি করি। ফলে দাঁতের ক্ষতি বাড়তে থাকে। তাই সময় থাকতে সাবধান হওয়াই শ্রেয়।

আরএম-০৯/১০/০৯ (লাইফস্টাইল ডেস্ক)