বিএনপির বৃহত্তর ঐক্য না হলে আগামী নির্বাচনেও থাকছে আ.লীগ!

প্রকাশিতঃ জুলাই ২০, ২০১৮ আপডেটঃ ১০:১৫ অপরাহ্ন

খালেদা জিয়ার মুক্তি, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন, নির্বাসিত তারেক রহমানের দেশে ফেরা ও সময়ের দিকে তাকিয়ে থাকা বিএনপি বৃহত্তর ঐক্য। এই চার নিয়ে জনমনে চলছে ব্যাপক জল্পনা-কল্পনা।

এদিকে জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে দলটির শীর্ষ নেতাদের বক্তব্য, সরকারবিরোধী দলগুলোকে নিয়ে বৃহত্তর ঐক্য, জনগণকে সম্পৃক্ত করে গণঅভ্যুত্থান এবং মুক্ত খালেদা জিয়াকে নিয়ে জাতীয় নির্বাচনের তোড়জোড় থাকলেও বিশ্লেষকরা এমন বক্তব্যকে বায়বীয় বলে মনে করছেন।

তারা বলেছেন, আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে চলমান এই প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত প্রায় প্রত্যেকেই দ্বিধাগ্রস্ত। এখন পর্যন্ত ঐক্যের কোনও কাঠামো তৈরি হয়নি বিএনপির। হয়নি কেন্দ্রীয় কোনও সমন্বয় কমিটি। পুরোটাই বায়বীয়। যদিও ঐক্য নিয়ে এখনো আশা ছাড়েনি দলটি। তবে আগস্টের মাঝামাঝি সবাই একমত না হলে বোঝা যাবে, আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগই থাকছে।

আরও খবর : ভারতে ধর্ম ও জাতপাতের সহিংসতা বাড়ছেই

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এ ধরনের ঐক্য তো একদিনে হয় না, সময় লাগে। কাজ চলছে। আর টাইম দিয়ে তো ঐক্য হয় না।

ঐক্যের অন্যতম উদ্যোক্তা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, সরকার মনে করছে বৃহত্তর রাজনৈতিক ঐক্য হলে তাদের জন্য ক্ষতিকর হবে। জাতীয় ঐক্য না হলে লাভ হবে না। দুই সপ্তাহের মধ্যে ফয়সালা হতে হবে। আগস্টের মধ্যে মাঝামাঝি সবাই একমত না হলে বোঝা যাবে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগই থাকছে। এর কোনও পরিবর্তন আসছে না।

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, বৃহত্তর রাজনৈতিক ঐক্য গড়ে তোলা এখন সময়ের দাবি। আমাদের মধ্যে যে ফ্যাসিবাদ চেপে বসেছে, তাকে সবাই মিলে বিদায় করতে হবে। এই ঐক্য প্রক্রিয়াগত ও সাংগঠনিকভাবে এগিয়েছে বলা যায় না। তবে আমি একটি বৃহত্তর ঐক্যের ব্যাপারে আশাবাদী।

এসএইচ-২৩/২০/০৭ (অনলাইন ডেস্ক, তথ্যসূত্র : আমাদের সময়.কম)