যে কারণে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দিলেন স্ত্রী

প্রকাশিতঃ আগস্ট ২৯, ২০১৯ আপডেটঃ ১০:০৭ অপরাহ্ন

সংসারে কলহের জের ধরে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দিয়েছেন স্ত্রী। এ ঘটনায় অভিযুক্ত স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে অভিযুক্ত স্ত্রীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার গভীর রাতে নাটোরের সিংড়া উপজেলার রামানন্দ খাজুরিয়া ইউনিয়নের তেঘর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত স্বামী তেঘর গ্রামের বাসিন্দা। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, সিংড়া উপজেলার বেগুনবাড়ি গ্রামের এক নারীর সঙ্গে ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন তেঘর গ্রামের এক যুবক। একই কারখানায় কাজ করার সুবাদে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আট মাস আগে গোপনে বিয়ে করেন তারা। কোরবানির ঈদের ছুটিতে বাড়ি গিয়ে বিয়ের কথা অস্বীকার করেন ওই যুবক। একই সঙ্গে স্ত্রীকে ঘরে তুলতে গড়িমসি করেন তিনি। এ অবস্থায় গ্রাম্য সালিশদারদের বিষয়টি জানান ওই নারী। পরে গ্রাম্য সালিশে ওই নারীকে ঘরে তুলে নিতে রায় দেন স্থানীয় মাতব্বররা।

সালিশের রায় অনুযায়ী ওই নারীকে ঘরে তোলেন ওই যুবক। পরে একসঙ্গে বসবাস শুরু করেন তারা। এরই মধ্যে আবারও স্ত্রীকে অস্বীকার করেন ওই স্বামী। বিষয়টি নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়।

রাগ করে বুধবার রাতে স্বামী ঘুমিয়ে পড়লে ধারালো ব্লেড দিয়ে পুরুষাঙ্গ কেটে দেন স্ত্রী। এ সময় চিৎকার শুরু করেন স্বামী। বাড়ির লোকজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্বামীকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সিংড়া থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) পলাশ বলেন, স্বামীর লিঙ্গ কর্তনের ঘটনায় জড়িত স্ত্রীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ১৬৪ ধারায় জবানবন্দির জন্য তাকে আদালতে পাঠানো হয়। দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিএ-১৯/২৯-০৮ (উত্তরাঞ্চল ডেস্ক)