রাজশাহীতে ককটেল বিস্ফোরণ: বিএনপি নেতা গ্রেপ্তার (অডিও)

প্রকাশিতঃ জুলাই ২২, ২০১৮ আপডেটঃ ৩:৪০ অপরাহ্ন

রাজশাহী জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মন্টুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে মহানগর গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) ও বোয়ালিয়া থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে।

নগরীর সাগরপাড়া বটতলা এলাকায় বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থীর গণসংযোগে ককটেল বিস্ফোরণের মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র সিনিয়র সহকারী কমিশনার (সদর) ইফতে খায়ের আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বোমা হামলা নিয়ে মোবাইল ফোনের কথোপকথনের সূত্র ধরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। মোবাইল ফোনের ওই অডিও রেকর্ড জব্দ করা হয়েছে বলে জানান ইফতে খায়ের আলম।

আরও খবর: এক নারীর ৬ সন্তান প্রসব!

রাজশাহী হামলার ঘটনায় কথোপকথনে যা আছে:

-ভাই(টিপু বলে চিহ্নিত)

-ভাল আছো? (মণ্টু হিসেবে চিহ্নিত)

-আছি ভাই। (টিপু বলে চিহ্নিত)

-এই কালকে কাজ-কাম করেছি, প্রচ- রোদের তাপে। জিয়াউর অসুস্থ। তো গত পরশু দিন যে ঘটনা ঘটেছে, শুনছো তো নাকি? (মণ্টু হিসেবে চিহ্নিত)

-এই একটু শুনেছি, বেশি শুনি নাই। বোম্ব মেরেছে এইটা তো? (টিপু বলে চিহ্নিত)

-হ্যাঁ, (মণ্টু হিসেবে চিহ্নিত)

-সেটা তো জানি। (টিপু বলে চিহ্নিত)

-কারা করলো, এটা কি জান? (মণ্টু হিসেবে চিহ্নিত)

-অ্যা? (টিপু বলে চিহ্নিত)

-কারা করেছে এটা কি জানো? (মণ্টু হিসেবে চিহ্নিত)

-তা জানি না (টিপু বলে চিহ্নিত)

-যাক, আমি যে কথা বলবো ওটা হজম করবা, জাগা মতো পারলে বলবা। দুই ভাই জড়িত। (মণ্টু হিসেবে চিহ্নিত)

-অ্যা? (টিপু বলে চিহ্নিত)

-আমাদের দুইজন জড়িত। যে দুইজনকে দিয়ে কাজ করানো হয়েছে, ভাইয়ার কাছে ক্রেডিট নেওয়ার জন্যে, এই বোম্ব ফেলেছে। হ্যাঁ? ঠিক আছে? (মণ্টু হিসেবে চিহ্নিত)

-কোন দুই ভাই? (টিপু বলে চিহ্নিত)

-তোমার নাটোর আর আমার খালেক। ওই যে শাহীন শওকত (বিএনপির রাজশাহী বিভাগের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক)। (মণ্টু হিসেবে চিহ্নিত)

-এইটা আমার বিশ্বাস হয়। (টিপু বলে চিহ্নিত)

-জাবেদ হলো, আমার শাহীন শওকত ভাইয়ের লোক, জাবেদ। এবংৃ (মণ্টু হিসেবে চিহ্নিত)

-না, ঠিক আছে। এটা আমার বিশ্বাস হয়। (টিপু বলে চিহ্নিত)

-এইটা হওয়ার সাথে সাথে, প্রায় সব ঠিক হয়ে গেছে। সব ঠিক করেছিৃ। (মণ্টু হিসেবে চিহ্নিত)

উল্লেখ্য, ১৭ জুলাই বেলা সাড়ে ১০টার দিকে নগরীর সাগরপাড়া বটতলা মোড়ে বুলবুলের নির্বাচনী পথসভা চলছিল। তাতে বক্তব্য রাখছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রূহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু। সেখানে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, বিভাগীয় সহসাংগঠনিক সম্পাদক শহীন শওকত, জেলা বিএনপির সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন তপু ও সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মন্টু প্রমুখ।

এ সময় মুখোশ পরা ছয়জন দুর্বৃত্ত তিনটি মোটরসাইকেলে এসে সভাস্থলে পরপর তিনটি ককটেল ছুঁড়ে টিকাপাড়া সড়ক হয়ে পূর্বদিকে চলে যান। ককটেলগুলো বিকট শব্দে বিস্ফোরিত হলে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান, বেসরকারি টেলিভিশন বাংলাভিশনের রাজশাহী প্রতিনিধি পরিতোষ চৌধুরি আদিত্য এবং স্থানীয় স্বপন কর্মকার আহত হন। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নেন তারা।

রাজশাহী নির্বাচন কেন্দ্র করে ককটেল হামলায় বিএনপি নেতাদের ফোন আলাপ ফাঁস

রাজশাহী নির্বাচন কেন্দ্র করে ককটেল হামলায় বিএনপি নেতাদের ফোন আলাপ ফাঁস

Posted by আগামীর রাজশাহী – Agamir Rajshahi on Saturday, July 21, 2018

এমও-০১/২২-০৭ (নিজস্ব প্রতিবেদক)