রাজশাহীতে মাদক ব্যবসায়ীদের মধ্যে গোলাগুলি, নিহত ১

প্রকাশিতঃ ফেব্রুয়ারী ১১, ২০১৯ আপডেটঃ ৪:৩৬ অপরাহ্ন

রাজশাহীর চারঘাটে দু দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে গোলাগুলিতে ফজলুল হক (৪৫) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। রোববার দিবাগত রাত পৌনে ২টার দিকে উপজেলার রাউথা ঘোষপাড়া এলাকার একটি আমবাগানে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ফজলুল হক ওই এলাকার আবদুল ওহাব মুন্সির ছেলে।

পুলিশ বলছে, নিহত ফজলুল হক পুলিশের তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী। তার নামে বিভিন্ন থানায় ১০টি মাদক সংক্রান্ত মামলা রয়েছে। ঘটনার পর ওই এলাকা থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি, একটি ম্যাগজিন এবং ৫৫ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধারের কথা জানায় পুলিশ।

খবর পেয়ে তখনই ঘটনাস্থলে যায় চারঘাট মডেল থানা পুলিশ। ওই সময় গোলাগুলি চলায় অন্ধকারে পালাতে গিয়ে পড়ে থানার ওসিসহ ৫ সদস্য আহত হন।

এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশের মুখপাত্র আবদুর রাজ্জাক খান। তিনি বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য সোমবার সকালে মরদেহ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল মর্গে নেয়া হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় হত্যা, অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে তিনটি মামলা হয়েছে। এতে আসামী করা হয়েছে অজ্ঞাত।

তিনি আরো বলেন, গভীর রাতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুদল মাদক ব্যবসায়ী সংঘর্ষে জড়ায়। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যান থানার ওসি নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সদস্য। এসময় মাদক ব্যবসায়ীরা গোলাগুলি শুরু করে। এসময় হুড়োহুড়ি করতে গিয়ে অন্ধকারে পড়ে ওসিসহ ৫ পুলিশ সদস্য আহত হন।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে ১০ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুঁড়ে পুলিশ। মাদক ব্যবসায়ীরা সরে যাবার পর সেখান থেকে গুলিবিদ্ধ ফজলুল হকের নিথর দেহ উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় আইনত ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান আবদুর রাজ্জাক।

জেলা পুলিশের এই কর্মকর্তা আরো জানান, রোববার দিবাগত রাতে জেলার ৮ থানা এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযানে গ্রেফতার করা হয় ৩৩ জনকে।

এরমধ্যে গোদাগাড়ীতে ৫ জন, তানোরে ৫ জন, মোহনপুরে ৩ জন, পুঠিয়ায় ২ জন, বাগমারায় ২ জন, দূর্গাপুরে ৪ জন, চারঘাটে ৫ জন এবং বাঘায় ৬ জন গ্রেফতার হন। বাকি এক জনকে গ্রেফতার করে জেলা পুলিশ। অভিযানে কিছু মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়। এনিয়েও আইনত ব্যবস্থা নিয়েছে পুলিশ।

বিএ-০৫/১১-০২ (নিজস্ব প্রতিবেদক)