রাজশাহীতে চালু হচ্ছে সেলুন ভিত্তিক পাঠাগার

প্রকাশিতঃ ফেব্রুয়ারী ১৯, ২০১৯ আপডেটঃ ৩:৫৮ অপরাহ্ন

রাজশাহী নগরীতে চালু হচ্ছে সেলুন ভিত্তিক পাঠাগার। এই উদ্যোগ দেশজুড়ে প্রথম। চুল-দাড়ি কাটাতে এসে প্রায়ই অপেক্ষায় থাকতে হয় লোকজনকে। অবসরের এই সময়টুকু বইপড়ে কাটাতে এই উদ্যোগ।

বইপড়া অভ্যাস গড়তে অভিনব এই উদ্যোগ বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে রাজশাহীর কেন্দ্রীয় কিশোর পাঠাগার। এর বাইরে বিনামূল্যে বাড়িতে বসে বইপড়ার সুযোগ দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

জানা গেছে, কেন্দ্রীয় কিশোর পাঠাগার রাজশাহী মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ডে ৩শত সেলুনে ‘সেলুন ভিত্তিক পাঠাগার’ গড়ছে। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে নগরীর ১৪নং ওয়ার্ডে ১০টি সেলুনে পরীক্ষামূলকভাবে চালু হচ্ছে এই কার্যক্রম।

কর্মসূচির উদ্যোক্ততা কেন্দ্রীয় কিশোর পাঠাগারের প্রতিষ্ঠাতা সোহাগ আলী জানান, দিন দিন গণগ্রন্থাগারগুলোতে পাঠক কমে যাচ্ছে। তাছাড়া কর্মব্যস্ততার মাঝে গ্রন্থাগারে গিয়ে বইপড়ার পর্যাপ্ত সময় ও সুযোগ পাচ্ছেনা মানুষ। আমরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের বিনামূল্যে বইপড়া কর্মসূচি গ্রহণ করে থাকি; যাতে করে সহজেই পাঠক গ্রন্থাগারে না গিয়ে ঘরে বসেই বই পড়ার সুযোগ পান

আমাদের গৃহীত কর্মসূচির মধ্যে পলান সরকার বইপড়া আন্দোলন অন্যতম। যা মহানগরীতে দিনদিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। ১৯৯৭ সালে কেন্দ্রীয় কিশোর পাঠাগার প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে পাঠক সৃষ্টির লক্ষে কাজ করে যাচ্ছে।

সোহাগ আলী আরো বলেন, আমরা আশা করছি সেলুন ভিত্তিক এই শিক্ষামূলক সেবাটি প্রত্যেক পাঠকের কাছে আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হবে। ভিন্নধর্মী এই আয়োজনে সকলের কাছ থেকে সহযোগিতা কামনা করেন সোহাগ আলী।

বিএ-০৪/১৯-০২ (নিজস্ব প্রতিবেদক)