ধর্মঘটে রাজশাহী বিভাগের ফিলিং স্টেশন মালিকরা

প্রকাশিতঃ ডিসেম্বর ১, ২০১৯ আপডেটঃ ৪:৪০ অপরাহ্ন

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ধর্মঘটে গেছেন রাজশাহী বিভাগের ফিলিং স্টেশন মালিকরা। রোববার সকাল থেকেই এই অঞ্চলের ফিলিং স্টেশনগুলো বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছে সব ধরণের জ্বালানি তেল।

এতে বিপাকে পড়েছেন এই অঞ্চলের ব্যক্তিগত ও গণপরিবহণ মালিকরা। রাস্তায় কমেছে যান চলাচল।

কয়েকজন ফিলিং স্টেশন মালিক জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক ভোর ৬টা থেকে তারা ধর্মঘটে গেছেন। এরপর থেকেই ফিলিং স্টেশন থেকে আর কাউকে জ্বালানি দিচ্ছেনা।

ফিলিং স্টেশন মালিকদের সাথে আন্দোলনে আছেন ট্রাঙ্কলরি মালিকরাও। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এ ধর্মঘট চলবে।

জ্বালানি তেল বিক্রির কমিশন এবং ট্যাঙ্কলরি ভাড়া বাড়ানোসহ ১৫ দফা দাবি বাস্তবায়নে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সময় বেধে দিয়েছিলো পেট্রোল পাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন ও ট্যাংকলরি মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

গত ২৬ নভেম্বর বগুড়া প্রেসক্লাবেসংবাদ সম্মেলনে এই আহবান জানান সংগঠনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব ও রাজশাহী বিভাগীয় সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান রতন।

তিনি বলেন, তাদের দাবিগুলো যৌক্তিক। দাবি বাস্তবায়নে তারা সরকারকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সময় বেধে দিয়েছিলেন। কিন্তু ওই সময়ের মধ্যে দাবি বাস্তবায়ন হয়নি।

ফলে পূর্বঘোষণা অনুযায়ী তারা ১ ডিসেম্বর থেকে খুলনা, রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে ধর্মঘটে গেছেন। ধর্মঘটের ফলে এই অঞ্চলের সবগুলো ডিপো থেকে জ্বালানি তেল উত্তোলন, পরিবহন ও বিপণন কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, এ খাতটি এরই মধ্যে অলাভজনক হয়ে পড়েছে। তাই বাধ্য হয়েই তারা চূড়ান্ত কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। দাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, একই কর্মসূচির খুলনা এবং রংপুর বিভাগ থেকেও আলাদাভাবে পালন করা হবে।

বিএ-০১/০১-১২ (নিজস্ব প্রতিবেদক)