রাজশাহীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪, আহত ২০

প্রকাশিতঃ ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯ আপডেটঃ ৯:৫৫ অপরাহ্ন

রাজশাহীর মোহনপুর, বাগমারা ও গোদাগাড়ীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই মোটরসাইকেল ও ভ্যান চালকসহ ৪ জন নিহত এবং ২০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে কয়েকজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ও বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

নিহতরা হলেন, রাজশাহী মহানগরীর শাহমখদুম থানার নওদাপাড়া এলাকার নাজমুল হাসানের ছেলে মোটরসাইকেল চালক সিফাত (২২) ও মোহনপুর উপজেলার কেশরহাট এলাকার বরকতুল্লাহর ছেলে খয়ের আলী (৫০), বাগমারা উপজেলার ভ্যান চালক আবু বাক্কার ওরফে ভাণ্ডার (৫৫) ও গোদাগাড়ী উপজেলার রামনগর গ্রামের মৃত মুক্তিযোদ্ধা ইলিয়াস আলীর মাসুদ (৩৫)। রোববার সকালে ও দুপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এ ঘটনা ঘটে।

মোহনপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল চালক ও পথচারীসহ দুই জন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন, মহানগরীর শাহমখদুম থানার নওদাপাড়া এলাকার নাজমুল হাসানের ছেলে মোটরসাইকেল চালক সিফাত (২২) ও মোহনপুর উপজেলার কেশরহাট এলাকার বরকতুল্লাহর ছেলে খয়ের আলী (৫০)।

রোববার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার যমুনা জুটমিলের সামনে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, মোটরসাইকেল চালক সিফাত যাচ্ছিলেন। পথে তিনি যমুনা জুট মিলের কাছে পৌঁছালে অপর দিক থেকে জুট মিলের উদ্দেশ্যে পায়ে হেঁটে যাওয়া খয়ের আলীর সাথে মুখোমুখি ধাক্কা লাগে। এতে সিফাত মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে রাস্তা পড়ে ও ধাক্কা লেগে খয়ের গুরুতর আহত হন। এ সময় স্থানীয়রা আহতবস্থায় তাদের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পরে নিহতদের লাশ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়। আইনি প্রক্রিয়া শেষে হস্তান্তর করা হবে।

রামেক হাসপাতাল পুলিশ বক্সের ইনচার্জ এএসআই রফিকুল ইসলাম বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় দুই জন নিহত হয়েছে। লাশ মর্গে রাখা হয়। আইনি প্রক্রিয়া শেষে লাশ হস্তান্তর করা হয়।

বাগমারায় দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে আবু বাক্কার ওরফে ভাণ্ডার (৫৫) নামের এক ভ্যান চালক নিহত হয়েছেন। রোববার দুপুর দেড় টার দিকে উপজেলার বালানগর মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় দুই বাসের সামনের কাঁচ ও বডি ভেঙ্গে দুমড়ে যায়। প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, কেশরহাট-ভবানীগঞ্জ সড়ককে মাথাভাঙ্গার সামনে বালানগর-সগুনা মোড় রাজশাহী হতে ভবানীগঞ্জ গামী সিয়াম পরিবহন জ-০৫-০০২১ নামে একটি বাস মোড় ঘুরতে গিয়ে ব্রেক ফেল করে। এ সময় সামনে ভবানীগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা নিপু-দিপু ব-১৮৬১ একটি বাসকে সরাসরি ধাক্কা দেয়। দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষের আগে রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা বাসটি ব্রেক ফেল করে ভ্যানের পিছনে ধাক্কা দেয়। সে সময় ভ্যান চালক ভ্যান থেকে ছিটকে রাস্তার উপরে পড়ে যায় এবং অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ ছাড়া বাসের অন্তত ২০ জন যাত্রী আহত হয়েছেন।

স্থানীয় ভাবে তাদেরকে চিকিৎসা দেয়া হলেও ড্রাইভার জাহাঙ্গীর রহমান, বালানগর গ্রামের তানভীর রহমান সহ আরোও ১২ জনকে আহত অবস্থায় স্থানীয় স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স ও ক্লিনিকে নেয়া হয়। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে আহতদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ঘটনাস্থলে উপস্থিত বাগমারা থানার এসআই রইস উদ্দিন জানান, উভয় বাসের সংঘর্ষের ঘটনায় ১ জন নিহত হয়েছে। অন্যদের স্থানীয় ও বিভিন্ন হাসপাতারে প্রেরণ করা হয়েছে।

গোদাগাড়ীতে ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মাসুদ (৩৫) নামের এক মোটর সাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। রোববার বেলা ১১ টার দিকে গোদাগাড়ী পৌর এলাকার আমনুরা রোড গোরস্থান সংলগ্ন স্থানে এই ঘটনা ঘটে। তিনি রামনগর গ্রামের মৃত মুক্তিযোদ্ধা ইলিয়াস আলীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, রোববার বেলা ১১ টার দিকে মাসুদ মোটরসাইকেল যোগে আমনুরার দিকে যাচ্ছিলেন। পথে ট্রাক নিয়নন্ত্রণ হারালে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। স্থানীয়রা দ্রুত উদ্ধার করে গোদাগাড়ী ৩১ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসত মৃত ঘোষণা করেন।

গোদাগাড়ী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খায়রুল ইসলাম বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় একজন নিহত হয়েছেন। আইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

এসএইচ-২৭/১৫/১৯ (নিজস্ব প্রতিবেদক)