বিরল রোগে আক্রান্ত একই বংশের ১০ জন (ভিডিও)

প্রকাশিতঃ ডিসেম্বর ৬, ২০১৭ আপডেটঃ ৩:৩২ অপরাহ্ন

জামালপুর জেলার ইসলামপুর পৌর এলাকার উত্তর দরিয়াবাদ ফকিরপাড়া গ্রামে একই বংশের তিনটি পরিবারে অন্তত ১০ জন সদস্য বিরল রোগে আক্রান্ত। শরীরে অতিরিক্ত লোম নিয়ে দুর্বিষহ জীবনযাপন করছেন তারা। অর্থের অভাবে তারা রোগটির চিকিৎসা করাতে পারছে না। তবে চিকিৎসার জন্য অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

শরীরে অতিরিক্ত লোমজনিত সমস্যায় ভুগছেন ওই পরিবারের একজন ২৫ বছরের নারী শিরিনা আক্তার। শরীরে লম্বা লম্বা লোম নিয়েই জন্ম হয় তার, এখনো উচ্চতা মাত্র আড়াই ফুট। প্রথম দেখায় তাকে পুরুষ বলে ভুল হতে পারে যে কারও। উচ্চতা না বাড়লেও শরীরে লোম বাড়ছে দিন দিন । মুখে গজিয়েছে লম্বা দাড়ি।

এ সম্পর্কে শিরিনা আক্তার বলেন, ‘আমার শারিরীক সমস্যা পাশাপাশি আমার মেরুদন্ডতেও সমস্যাও আছে। তাছাড়া ঠিক মতো খাইতে পারি না, বসতে পারি না এই রকম নানা সমস্যা আক্রান্ত আমরা। এইজন্য চিকিৎসার জন্য যদি কেউ টাকা পয়সা দিয়ে সাহায্য সহযোগীতা করে তাহলে অনেক সুবিধা হতো আমাদের।’

আরও খবর: লক্ষ্মীপুরের সেই এডিসিকে ওএসডি

এমন দুঃসহ জীবন শুধু শিরিনার নয়। তার মা কমিলা বেগম , ভাই করিম শেখসহ একই বংশের অন্তত দশজনের একই অবস্থা। মুখসহ সারা শরীরে এমন অস্বাভাবিক লোম নিয়ে দিন কাটাচ্ছে তারা। আর্থিক অবস্থা ভালো না হওয়ায় বিরল এ রোগের চিকিৎসাও করাতে পারছে না তারা। স্বাভাবিক জীবন ফিরে পেতে উন্নত চিকিৎসার জন্য সরকারসহ সমাজের বিত্তবানদের সহযোগিতা চেয়েছে এসব ভুক্তভোগী।

এ সম্পর্কে জামালপুর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ রাসেল সাবরিন বলেন, ‘এসব লোকজন আমাদের সাথে যোগাযোগ করলে তাদের চিকিৎসার জন্য আমরা অবশ্যই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব। আর তাদের প্রতি আমাদের অনুরোধ তারা যেন দ্রুত আমাদের সাথে যোগাযোগ করে।’

বিএ-০১/০৬-১১ (আঞ্চলিক ডেস্ক,তথ্যসূত্র: ডিবিসি নিউজ)