ধর্ষণ মামলার বাদী প্রতিবন্ধী যুবককে হত্যার হুমকি বিএনপি নেতার

প্রকাশিতঃ জুন ১৩, ২০১৮ আপডেটঃ ৮:২৭ অপরাহ্ন

বাগেরহাটে এসিড মামলার বাদী প্রতিবন্ধী যুবক বেল্লাল মোল্লাকে (৩৭) জীবননাশ ও মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দেয়া হয়েছে। বুধবার দুপুরে বাগেরহাট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এসিড মামলার আসামিদের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেন প্রতিবন্ধী বেল্লাল মোল্লা।

লিখিত বক্তব্যে বেল্লাল মোল্লা বলেন, ফকিরহাট উপজেলার শুভদিয়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা আ. আউয়াল শেখ ও ইউপি সদস্য শেখ সাদি ২০০৪ সালে আমার বোনকে ধর্ষণ করে। এর প্রতিবাদ করায় তারা আমার উপর এসিড নিক্ষেপ করে। আমার বাড়িতে অগ্নি সংযোগ কওে পুড়িয়ে দেয়।

এসব ঘটনায় আমি বাদী হয়ে তাদের নামে ধর্ষণ, এসিড নিক্ষেপ ও অগ্নিসংযোগের মামলা করি। বর্তমানে মামলাগুলো বিচারাধীন রয়েছে। আমি যাতে মামলাগুলো উঠিয়ে আনি এবং মামলার কোন তদবির না করি এ জন্য আউয়াল শেখ বিভিন্ন লোক মারফত আমাকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছে।

আরও খবর: কিশোরীকে ধর্ষণের পর নগ্ন ও অচেতন অবস্থায় ফেলে পালিয়েছে দুবৃত্তরা!

র‌্যাব পরিচয়েও এক ব্যক্তি আমাকে মাদক মামলায় দিয়ে ক্রসফায়ার দেয়ার হুমকি দিচ্ছে। এ অবস্থায় আমি ও আমার পরিবার প্রচন্ড নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ অবস্থায় প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছি। বেল্লাল আরও বলেন, মামলা থেকে বাঁচতে আসামিরা আমার বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দেয়। ওই মামলায় আমি নির্দোষ প্রমাণিত হয়েছি। এরপরও আসামিরা আমার বিরুদ্ধে নানারকম ষড়যন্ত্র করে আসছে।

সংবাদ সম্মেলন শেষে বেল্লালের মা আয়েশা বেগম কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, আমার স্বামী মারা যাবার পর একমাত্র ছেলে সংসার চালায়। কিছুদিন ধরে র‌্যাব ও পুলিশ পরিচয়ে বিভিন্ন লোকজন আমার বাড়িতে এসে বেল্লালকে মাদক দিয়ে ক্রসফায়ার দেয়ার হুমকি দিয়েছে। আমাদের দায়েরকৃত ৩টি মামলার আসামিরা প্রশাসনকে ভুল তথ্য দিয়ে আমার ছেলেকে হয়রানি করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এ ব্যাপারে শুভদিয়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আ. আউয়াল শেখ তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন আমি এখন ব্যবসা বানিজ্য নিয়ে ব্যস্ত আছি। এসব মামলা নিয়ে ভাবার সময় নেই আমার।

বিএ-১২/১৩-০৬ (আঞ্চলিক ডেস্ক)