পশু জবাইয়ে অমুসলিমদের সহযোগিতা গ্রহণ করা যাবে?

প্রকাশিতঃ আগস্ট ১১, ২০১৯ আপডেটঃ ২:০৩ অপরাহ্ন

পশু জবাইকারী যদি মুসলিম হয়, পশু যারা ধরেছে তারা অমুসলিম হলেও কোনো সমস্যা নেই। কারণ যারা পশু ধরে তাদের ওপর ‘বিসমিল্লাহ’ পাঠ করা ওয়াজিব নয় এবং তাদের পাঠ করা বা না করায় জবাইয়ের কোনো ক্ষতিও হয় না। তবে কেউ জবাইয়ের কাজে অংশীদার হলে তার ওপর ‘বিসমিল্লাহ’ পাঠ করা ওয়াজিব। যেমন—

কেউ শক্তি জোগানোর জন্য যদি জবাইকারীর হাতের ওপর হাত রাখে, একজন জবাই করার পর অন্যজন আবারও ছুরি চালায়, তখন তার ওপর ‘বিসমিল্লাহ’ পাঠ করা ওয়াজিব। শুধু পশু ধরার মাধ্যমে ব্যক্তিকে জবাইয়ের কাজে অংশীদার বলা যাবে না। (ইমদাদুল ফাতাওয়া : ৩/৫৪৯)

জবাই শুদ্ধ হওয়ার শর্তসমূহ

কোরআন ও সুন্নাহর বিধান অনুযায়ী জবাই শুদ্ধ তথা জবাইকৃত পশুর গোশত বৈধ হওয়ার জন্য তিনটি শর্ত পালন আবশ্যক। এক. জবাইকারী মুসলিম হবে। দুই. জবাইয়ের সময় আল্লাহর নাম উচ্চারণ করা। তিন. শরিয়তসম্মত পদ্ধতিতে পশু জবাই করা। তা হলো, পশুর খাদ্যনালি, দুটি শ্বাসনালি ও রক্তনালি কাটা।

আরএম-০২/১১/০৮ (ধর্ম ডেস্ক)