মাতাল অবস্থায় নারীর ঘরে প্রবেশ করে পুলিশ সদস্য ধরা

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ২৬, ২০১৯ আপডেটঃ ১০:১৯ অপরাহ্ন

মাতাল হয়ে নারীর ঘরে প্রবেশ করে ধরা পড়েছেন নৌপুলিশের সদস্য শামচুল আলম। শুক্রবার গভীর রাতে সিরাজগঞ্জের চৌহলী উপজেলার চৌদ্দরশি গ্রামের এক নারীর ঘরে ঢুকেন তিনি।

পরে স্থানীয়রা তাকে ধরে উত্তমমধ্যম দিয়ে পুলিশে দেয়।

অভিযুক্ত শামচুল আলম চৌহলী পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত। ৮ মাস আগে চৌহালীতে যোগদান করেন করেন তিনি।

শনিবার তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে প্রধান কার্যালয়ে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

চৌহালী নৌপুলিশের অফিসার ইনচার্জ বাবর আলী এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, শামচুল মাদকাসক্ত ছিল। এর আগে মাদক সেবনসহ অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে টাঙ্গাইল থেকে তাকে চৌহালীতে বদলি করা হয়েছিল।

শুক্রবার রাতের ঘটনায় শামচুলকে সাময়িক বরখাস্ত ও প্রত্যাহার করে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার নির্দেশে হেডকোয়ার্টারে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয়রা বলছেন, নারীর বাড়িতে অনৈতিক উদ্দেশে যান ওই পুলিশ সদস্য। টের পেয়ে ওই নারী চেঁচামেচি শুরু করলে টের পেয়ে যান স্বজনরা।

পরে স্থানীয়রা তাকে ঘরের মধ্যে হাতেনাতে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে খবর দেয়।

রাতেই ফাঁড়ির কর্মকর্তারা তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় বিচার দেয়ার আশ্বাস দিয়ে নিয়ে যায়।

ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশে শনিবার ভোরে ঢাকা মিরপুর নৌপুলিশের প্রধান কার্যালয়ে তাকে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

বিএ-১৬/২৫-১০ (উত্তরাঞ্চল ডেস্ক)