পৃথুলা আরোহীদের প্রাণ বাঁচিয়েছিলেন

প্রকাশিতঃ মার্চ ১৩, ২০১৮ আপডেটঃ ৫:৫৭ অপরাহ্ন

নেপালে ইউএস বাংলার বিমান বিধ্বস্ত.. সামাজিক যোগাযোগামাধ্যমে এখন এটাই আলোচনার প্রধান বিষয়! সবাই নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা ও আহতদের সুস্থতা কামনা করে নানা পোষ্ট দিচ্ছেন।

এসবের মধ্যে ভিন্ন একটি পোষ্ট সবার নজর কেড়েছে। তা হচ্ছে, বিমানের কো-পাইলট পৃথুলা রশিদের আত্মত্যাগের কথা।

সোমবার নেপালের ত্রিভুবন বিমানবন্দরের কাছে ইউএস বাংলার ফ্লাইট বিএস২১১ বিধ্বস্তের ঘটনার কিছু পরেই সিকিম ম্যাজেঞ্জার নামের একটি ফেসবুক পেজে পৃথুলার ছবি প্রকাশ করা হয়।

আরও খবর : ইউএস বাংলার বিমানের ল্যান্ড করা নিয়ে যত প্রশ্ন

পৃথুলাকে Daughter of Bangladesh বা বাংলাদেশের মেয়ে উল্লেখ করে পোষ্টে বলা হয়, মৃত্যু নিশ্চিত জেনেও যাত্রীদের প্রাণ বাঁচানোর চেষ্টা করেছিলেন এই সাহসী নারী। তার আত্মত্যাগের কারণেই বিমানে থাকা অন্তত ১০ যাত্রী প্রাণে বেঁচে যান।

পোষ্টে বলা হয়, দুর্ঘটনা কবলিত ইউএস বাংলার ফ্লাইট বিএস২১১ বিমানের কো-পাইলটের দায়িত্ব পালন করছিলেন তিনি। যেটি সোমবার স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ২০ মিনিটে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হয়।

পোষ্টে বলা হয়, পৃথুলার ত্যাগের বিনিময়ে বিমানের ভেতরে থাকা অন্তত ১০ যাত্রী এখনও বেঁচে আছেন। অবশ্য পোষ্টে এই তথ্য ছাড়া আর কিছু বলা হয়নি।

এসএইচ-০৯/১৩/০৩ (অনলাইন ডেস্ক, তথ্যসূত্র : পরিবর্তন)