পেটপুরে খাইয়ে স্নাতক হওয়ার সাফল্য উদযাপন মার্কিন যুবতীর

প্রকাশিতঃ জুন ৬, ২০১৯ আপডেটঃ ৬:১৫ অপরাহ্ন

সদ্য স্নাতক হয়েছেন টেক্সাসের লিয়েন কারাসকো৷ বন্ধুরা সবাই জাঁকজমক সেলিব্রেশনে মেতেছে৷ লিয়েনও পার্টির আয়োজন করেছেন৷ পেটি পেটি পিৎজা আসছে৷ এ পর্যন্ত উদযাপনের আবহটা কমবেশি একই৷ কিন্তু লিয়েনের রাস্তা অন্য দিকে চলে যায় এরপরই৷ তাঁর আয়োজিত পার্টির অতিথি পথশিশুরা৷ তাদের পেট ভরছে পিৎজায়৷

একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, পার্টিতে ৯৫ কেজি পিৎজা আনিয়েছেন লিয়েন৷ হিউস্টনের স্টার অফ হোপ সেন্টার, যে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের জন্য গৃহহীন শিশুরা একটা ছাদ পেয়েছে, সেখানে গিয়েই লিয়েন সকলকে খাইয়েছেন৷ তাঁর কথায়, ‘সবাই তো আমার মতো ভালো পরিবেশ পায় না৷ অনেক মানুষ আছে, যাদের সাহায্য দরকার৷ আমি সেটাই করার চেষ্টা করছি৷’ শুধু দামি পিৎজা খাওয়ানোই নয়৷

প্রত্যেক শিশুর জন্য একটি করে ব্যাগ দিয়েছেন লিয়েন, যার ভিতরে রয়েছে টুথব্রাশ, পেস্ট, হাত ধোয়ার সাবান, ডিও-র মতো নিত্যপ্রযোজনীয় পরিচ্ছন্ন থাকার সামগ্রী৷ লিয়েনের এই উদ্যোগ নেটদুনিয়ায় দারুণ সাড়া ফেলেছে৷ স্টার অফ হোপ সেন্টারও এমন এক সাহায্যকারীকে পেয়ে খুশি৷ সংস্থার মুখপাত্র স্কট আর্থার টুইট করে গোটা বিষয়টি জানিয়েছেন৷ তিনি লিখেছেন, ‘এই যুবতী অন্যদের মতো নয়৷ অনাথ শিশুদের প্রতি এর মমতা, শ্রদ্ধা অসীম৷ এদিনের পর এখানকার শিশুরা মনে করছে, তাদের যত্ন নেওয়ার জন্য কেউ কেউ আছে৷’

স্নাতক হওয়ার পর লিয়েন এখন নার্সিং পড়তে চায়৷ জনগণের সেবাই এখন তাঁর ব্রত৷ লিয়েন বলছেন, ‘আমাদের সবসময়ে মনে রাখা উচিত যে আমরা অনেকটাই ভাগ্যবান যে হাতের নাগালে অনেক কিছু পাই৷ যারা এসব সুযোগসুবিধা থেকে বঞ্চিত, তাদের যেন ভুলে না যাই৷

ওদের প্রতি করুণা নয়, প্রকৃত অর্থে যেন ওদের সাহায্য করতে পারি৷’ লিয়েনের মতো করে যদি মার্কিন তরুণ প্রজন্ম ভাবতে পারে, তাহলে সেদেশের হাজার হাজার অনাথ, দরিদ্র শিশুর জীবন কিছুটা সুন্দর হতে পারে৷

এসএইচ-১৮/০৬/১৯ (অনলাইন ডেস্ক)