ধোনি ফোন ধরেননি স্ত্রীর!

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৯, ২০১৮ আপডেটঃ ১০:৪৫ অপরাহ্ন

যুবরাজ সিংহ একবার বলেছিলেন, মহেন্দ্র সিংহ ধোনি তাঁর ফোন ধরেন না। ধোনিকে ফোনে পাওয়া কঠিন। ভারতের প্রাক্তন অধিনায়কের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ, তিনি কারওরই ফোন ধরেন না। ধোনি অবশ্য এ বিষয়ে এতদিনে একটি শব্দও খরচ করেননি।

এবার ধোনি সেই রহস্য ফাঁস করলেন। তিনি জানান, প্রযুক্তি আর তাঁর মধ্যে বিস্তর ব্যবধান। তিনি ফোন ব্যবহারে সেভাবে পটু নন। তাঁর ফোন না ধরা নিয়ে অনেক কাহিনি যে ছড়িয়ে রয়েছে, তা-ও জানা ধোনির।

ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক নিজেও জানেন, প্রয়োজনের সময়ে তাঁকে ফোন করে যাঁরা পাননি, তাঁরা ধোনিকে নিয়ে অভিযোগও করেছেন। সঠিক ভাবে প্রযুক্তির ব্যবহার করা উচিত বলেই মনে করেন ধোনি।

২০১২ সালে ভিভিএস লক্ষ্মণ অবসর নেন। সেই সময়ে হায়দরাবাদের স্টাইলিশ ব্যাটসম্যান জানান, ধোনিকে পর্যন্ত খবরটা দিতে পারেননি তিনি। কারণ ধোনিকে ফোন করা হলেও তিনি সেই ফোন ধরেননি। আর এরপরেই জল্পনা তুঙ্গে ওঠে, লক্ষ্মণ ও ধোনির সম্পর্ক ভাল নয়।

সেই ঘটনার উল্লেখ করে ধোনি বলেন, ‘‘আপনারা মনে করতে পারেন এটা বিতর্ক। আমাকে ফোনে পাওয়া যায় না আমার বিরুদ্ধে সবাই এই অভিযোগই করেন। আসলে আমি ভাল করে ফোন ব্যবহার করতে পারি না। সেই কারণেই লক্ষ্মণভাই আমাকে ফোনে পাননি।’’

মেয়ে জিভার জন্মের খবরটাও ধোনিকে অন্যের মারফত দিতে হয়েছিল সাক্ষীকে। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপ শুরুর সপ্তাহখানেক আগেই জিভা হয়েছে। বিশ্বকাপের প্রস্তুতি প্রভাবিত হবে সেই কারণে নিজের সঙ্গে ফোন রাখতেন না ধোনি। সেই কারণে জিভার জন্মের খবরটা সুরেশ রায়নাকে দিয়েছিলেন সাক্ষী।

এসএইচ-২১/০৯/০৮ (স্পোর্টস ডেস্ক, তথ্যসূত্র : এবেলা)